শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ জুন, ২০২১ ১৯:২১
প্রিন্ট করুন printer

সিলেট-৩ আসনে উপ-নির্বাচন: হাবিবের দ্বৈত নাগরিকত্ব নিয়ে ইসিতে আতিক

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট

সিলেট-৩ আসনে উপ-নির্বাচন: হাবিবের দ্বৈত নাগরিকত্ব নিয়ে ইসিতে আতিক
বাঁ থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব ও জাপা প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক
Google News

সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবের প্রার্থিতা চ্যালেঞ্জ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক। আজ রবিবার বিকেলে আতিক নির্বাচন কমিশনে গিয়ে এ অভিযোগ দাখিল করেন। 

আতিকের অভিযোগ হাবিব যুক্তরাজ্যের নাগরিক। বিদেশি নাগরিক হিসেবে তিনি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন না। তবে আতিকের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হাবিবুর রহমান হাবিব। তার দাবি তিনি অনেক আগেই ব্রিটিশ নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছেন।

আতিকুর রহমান আতিক জানান, সংবিধান অনুযায়ী কোনো দ্বৈত নাগরিক বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন না। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব যুক্তরাজ্যের নাগরিক। তিনি যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব প্রত্যাহার না করে প্রার্থী হয়েছেন। নিয়ম অনুযায়ী নির্বাচনের ৬ মাস আগে নাগরিকত্ব প্রত্যাহার ও পাসপোর্ট সমর্পণের বিধান থাকলেও হাবিব তা করেননি। এছাড়া হাবিবুর রহমান হাবিব হলফনামায় যে আয়ের বিবরণ দিয়েছেন বাস্তবের সাথে তার মিল নেই। তিনি অনেক তথ্য গোপন করেছেন। ব্রিটিশ নাগরিক হিসেবে তিনি সেখানে একটি কোম্পানির অংশীদার। কিন্তু হলফনামায় সেটি গোপন করেছেন। 

আতিক বলেন, নির্বাচন কমিশনে হাবিবুর রহমান হাবিবের ব্রিটিশ আইডি ও ড্রাইভিং লাইসেন্সের কপি জমা দেয়া হয়েছে। এখন সংবিধান সমুন্নত রাখতে নির্বাচন কমিশনের উচিত এসব তথ্য যাচাই রাখা। আশাকরি নির্বাচন কমিশন সেটি করবেন। 

এ প্রসঙ্গে হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, তিনি অনেক আগেই ব্রিটিশ নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছেন। বাংলাদেশে নির্বাচনে অংশ নেয়ার লক্ষ্যে তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছেন। হয়রানির উদ্দেশ্যে এরকম অভিযোগ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ হাবিবের।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর