শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ২২:২৬
প্রিন্ট করুন printer

আড়াই মাস ধরে ‘শূন্য’ চেয়ারম্যান পদ!

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম

আড়াই মাস ধরে ‘শূন্য’ চেয়ারম্যান পদ!

দীর্ঘ আড়াই মাস ধরেই শূন্য আছে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদটি। বোর্ডের সচিবকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব দেয়ার পর থেকেই রুটিন কাজ ছাড়া উল্লেখযোগ্য তেমন কোন কাজ করতে পারছেন না। 

বোর্ড চেয়ারম্যান না থাকায় এক প্রকার বোর্ডের কাজ-কর্মে নানাভাবে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে বলে বোর্ড সূত্রে জানা গেছে। তাছাড়া এই পদে আসতে পদ-প্রত্যাশীরা লবিং-তদবিরও শুরু করেছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে নিশ্চিত করা হয়েছে।  

সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদের জন্য নানাভাবে সরকারের মন্ত্রী থেকে শুরু করে রাজনৈতিক নেতাদের কাছে লবিং-তদবির শুরু করেছেন প্রত্যাশীরা। নানা কৌশলে রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তারও করছেন তারা। এখানে আলোচনায় এসেছেন চট্টগ্রাম বোর্ডের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেশ ক’জন অধ্যক্ষ-অধ্যাপকরাও। প্রত্যেকেই চেয়ারম্যান হতে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, কমিউনিষ্ট এবং জামায়াত সমর্থিত হলেও সবাই আওয়ামী লীগের ‘বোরকা’ পড়েই চেয়ারম্যান হতে চেষ্টা করছেন। নিজেদের যোগ্যতার বিষয়গুলোও তুলে ধরছেন নানাভাবে। সবমিলে গুঞ্জন ও আতংকের মধ্যেই এখনও অনিশ্চিত কে হচ্ছেন সেই শিক্ষা বোর্ডের আলোচিত চেয়ারম্যান।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডসহ বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে আসতে বা স্থান পেতে আলোচনায় আছেন শিক্ষাবোর্ডের বর্তমান সচিব ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল আলীম, শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শক মো. জাহেদুল হক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক প্রদীপ চক্রবর্তী, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর স্বপন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মুজিবুল হক চৌধুরী, রাঙ্গামাটি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মাইন উদ্দিন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ফজলুল করিম চৌধুরী এবং চট্টগ্রাম মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন চক্রবর্তী। আলোচনায় থাকা সকলেই আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত ও কমিউনিষ্ট সর্মথিতসহ বিভিন্ন মতার্দশের অধ্যক্ষ-অধ্যাপক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সাবেক ও বর্তমান একাধিক কর্মকর্তা-কর্মচারি বলেন, চেয়ারম্যান পদে আসতে লবিং-তদবিরকারীদের মধ্যে অনেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক মতার্দশের। বর্তমানে সবাই আওয়ামীলীগার হয়ে গেছে। প্রত্যেকেই বিভিন্ন যোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছেন। আলোচনায় আছেন বিএনপি, জামায়াত ও কমিউনিষ্ট সর্মথিত শিক্ষকও।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক মো. জাহেদুল হক বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, এটা নিয়ে অনেকেই তদবির করছেন শুনেছি। তাছাড়া অনেকেই আমার সিনিয়র আছেন। আমি কোন তদবিরও করছি না। তবে কে হচ্ছেন সেটা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না এখনও।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের সর্বশেষ দায়িত্বপালনকারী চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম গত ১৯ নভেম্বর শিক্ষাবোর্ড থেকে বিদায় নিলেও ২১ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে অবসরে (পিআরএল) যান। অবসরে যাওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে আছেন বোর্ডের বর্তমান সচিব প্রফেসর আবদুল আলীম।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:০২
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:১০
প্রিন্ট করুন printer

ভোটগ্রহণ সম্পন্ন চট্টগ্রাম সিটিতে

অনলাইন ডেস্ক

ভোটগ্রহণ সম্পন্ন চট্টগ্রাম সিটিতে

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। বুধবার সকাল ৮টা থেকে একযোগে সব কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণ চলে।

সব কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে মাঠে ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় ১৮ হাজার সদস্য।

নির্বাচনী লড়াইয়ে মাঠে ছিলেন আওয়ামী লীগ-বিএনপি প্রার্থীসহ মেয়র পদে সাতজন ও সংরক্ষিত ৫৭ এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৭২ জন প্রার্থী। ভোটার রয়েছেন ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫০
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫২
প্রিন্ট করুন printer

চসিক নির্বাচন

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে ইভিএম ভাঙচুর, দুই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত

চট্টগ্রাম ব্যুরো

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে ইভিএম ভাঙচুর, দুই কেন্দ্রের ভোট স্থগিত
ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে ইভিএম ভাঙচুর।

ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচনে সংঘর্ষে ইভিএম ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ডের দুটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। বুধবার দুপুর ১টার দিকে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. হাসানুজ্জামান এ আদেশ দেন।

এর আগে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাথরঘাটা এলাকার জেএম সেন স্কুল ও কলেজ ভোটকেন্দ্রের দখল নিয়ে বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী মো. ইসমাইল বালী ও আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থী পুলক খাস্তগীরের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে ওই কেন্দ্রের একটি ইভিএম মেশিন ভাঙচুর করা হয়।

খবর পেয়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে। পরে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী মো. ইসমাইল বালীকে আটক করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার বেলা ১১টার দিকে হঠাৎ কয়েকশ লোক পাথরঘাটা বালিকা স্কুল ভোটকেন্দ্র ঘেরাও করে হামলা চালায়। এ সময় ভেতরে ঢুকে ইভিএম ভাঙচুর করেন তারা। ভোটকেন্দ্রে হামলা ও ভাঙচুরের কারণে ভোটগ্রহণ বন্ধ হয়ে যায়। হামলার সময় কেন্দ্রের সামনে অপেক্ষমাণ তিনটি বাসসহ বেশকিছু গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:০২
প্রিন্ট করুন printer

বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে, অভিযোগ আওয়ামী লীগের

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম

বিএনপি নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে, অভিযোগ আওয়ামী লীগের

নানা অভিযোগ তুলে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে বিএনপি প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল।

বুধবার দুপুরে বহদ্দারহাটে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এম রেজাউল করিম চৌধুরীর প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে ব্রিফিংয়ে এমন অভিযোগ করেন তিনি।

ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল বলেন, সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে গিয়েছি। ভোটারদের সঙ্গে কথা বলেছি। ভোটাররা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিতে কেন্দ্রে আসছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নোমান আল মাহমুদ, নজরুল করিম চৌধুরী, প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৩:০৭
প্রিন্ট করুন printer

কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা, পাহাড়তলীতে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সড়ক অবরোধ

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা, পাহাড়তলীতে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের সড়ক অবরোধ

পাহাড়তলী ঝাউতলা এলাকায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুর রহমানের সমর্থকরা সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন। ঝাউতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা দেওয়ার প্রতিবাদে সমর্থকরা দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পাহাড়তলী-ঝাউতলা সড়কে গাছ, বস্তা ফেলে অবরোধ করেন। এ সময় এ সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১২:৪৭
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৫২
প্রিন্ট করুন printer

বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী ইসমাইল বালী আটক

গোলাম রাব্বানী ও সাইদুল ইসলাম

বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী ইসমাইল বালী আটক

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ডে কয়েকটি কেন্দ্রে মারামারির ঘটনার পর বিএনপি মনোনীত কাউন্সিলর প্রার্থী মোহাম্মদ ইসমাইল বালীকে আটক করেছে পুলিশ। 

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুর ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে ইসমাইল বালীকে আটক করা হয়।

ইসমাইল বালীকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর