শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ১৯:৫২

বাঁশখালীতে অপরাধীকে বাঁচাতে মামলার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:

বাঁশখালীতে অপরাধীকে বাঁচাতে মামলার অভিযোগ

বাঁশখালীর বৈলছড়িতে বিপক্ষের হামলায় ডান পায়ের হাড় ভেঙে যাওয়া এবং বাঁ চোখে আঘাত পাওয়া এক ব্যক্তির পক্ষে মামলা না নিয়ে উল্টো তাকে আসামি করার অভিযোগ ওঠেছে। তার নাম মোহাম্মদ শাকিল (২৫)। তাঁর পক্ষে মামলা না নিয়ে উল্টো তাকে আসামি করায় রবিবার দুপুরে পুলিশের ডিআইজি কার্যালয়ে প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন শাকিলের পরিবার। গত ১২ জানুয়ারি ঘটনার দিন থেকে শাকিল চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

জানা গেছে, গত ১২ জানুয়ারি বাঁশখালী বৈলছড়ি নজুমুন্নেসা উচ্চ বিদ্যালয়ে কয়েকজন বন্ধুসহ ছাড়পত্র আনতে গেলে মারধরের শিকার হন শাকিলসহ কয়েকজন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শামসুল আলমের লোকজন এ হামলা চালায়। পরে শাকিলের স্বজনরা এ ঘটনায় মামলা করতে গেলে বাঁশখালী থানা মামলা নেয়নি। উল্টো বাঁশখালী থানায় গত ১৭ জানুয়ারি রাতে শাকিলসহ নয়জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়।

গুরুতর আহত শাকিলের বড় ভাই সরাফত আলী বলেন, ওই ঘটনায় সবচেয়ে বেশি আহত হয়েছিল শাকিল। তাকে রড দিয়ে পিটিয়ে পায়ের হাড় ভেঙে দেওয়া হয়েছে। আমরা মামলা করতে গেলে থানা মামলা নেয়নি। অথচ হামলাকারীদের পক্ষে শাকিলকে আসামি করে মামলা নেওয়া হয়েছে। আর যে ব্যক্তি মামলার বাদি হয়েছে সে চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বাঁশখালী থানায় অনেক মামলা আছে। আমার ভাইয়ের হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা না নিয়ে উল্টো আমার ভাইসহ যারা মারধরের শিকার হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করায় প্রতিকার চেয়ে ডিআইজি ও পুলিশ সুপার বরাবরে অভিযোগ দিয়েছি। ওসি ও তদন্তকারী এসআই পক্ষপাতিত্ব করে এ মামলা নিয়েছে।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, বিদ্যালয়ে টিসি আনতে গেলে দুইপক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের লোকজন আহত হয়েছেন। এজন্য দুপক্ষকেই অভিযোগ দিতে বলা হয়েছিল। এরমধ্যে শাকিলদের বিরোধী পক্ষ আমাদের কথায় মামলা দায়ের করতে আসলে আমরা মামলা নিই। শাকিলের পক্ষ কথা না শুনে নিরাপরাধ লোকদের আসামি করায় মামলাটি নেয়া হয়নি।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার/ফারুক তাহের


আপনার মন্তব্য