১৬ মার্চ, ২০২২ ১৯:৫১

ধর্ষণের সময় আঙ্গুলে কামড় দেওয়ায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

ধর্ষণের সময় আঙ্গুলে কামড় দেওয়ায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে হত্যা

ধর্ষণের সময় হাতের আঙ্গুলে কামড় দেওয়ায় এবং তা মা-বাবাকে জানিয়ে দেবে বলায় ক্ষুব্ধ হয়ে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া আলমগীর মিয়া প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাবকে এমনই তথ্য দিয়েছেন।

বুধবার ভোরে জবাড়ি জেলা সদর থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব সদর দফতরের গোয়েন্দা শাখা ও চট্টগ্রাম অঞ্চলের যৌথ টিম।

র‌্যাব-৭’র হাটহাজারী ক্যাম্প কমান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘ঘটনার দিন সকালে কোচিং শেষে বাসায় ফেরার পর আলমগীর মেয়েটিকে বাসায় ডাকে। ধর্ষণের উদ্দেশে ধস্তাধস্তি করার সময় মেয়েটি বারবার তাকে ছেড়ে দেওয়ার আকুতি জানায়। কান্না করে। ১৫ মিনিট ধরে পাশবিক আচরণের একপর্যায়ে মেয়েটি সুযোগ পেয়ে নিজেকে বাঁচাতে আলমগীরের আঙুলে কামড় দেয়। 

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি কাঁদতে কাঁদতে ঘটনা তার মা-বাবাকে জানাবে বলে। তখন আলমগীর রাগান্বিত হয়ে তাকে ধরে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে খুন করে। খুনের পর স্ত্রীকে নিয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। প্রথমে তারা মানিকগঞ্জ যায়। সেখান থেকে আলমগীর চলে যায় রাজবাড়ি শহরে।

র‌্যাব জানায়, আলমগীর দুই বিয়ে করেছে। তিন মাস আগে সাভার থেকে এসে হালিশহরে তারা বাসা নেয়। দুই বছর আগেও তার বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জে একজনকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে। তখন সেখান থেকে পালিয়ে আলমগীর ধামরাই, মানিকগঞ্জ, রাজবাড়ি এবং সর্বশেষ সাভারে আত্মগোপন করেছিল।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর