শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৪:৩২
আপডেট : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৪:৩৮

নারায়ণগঞ্জে কারাবন্দীদের জন্য পোশাক কারখানার উদ্বোধন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জে কারাবন্দীদের জন্য পোশাক কারখানার উদ্বোধন

নারায়ণগঞ্জে পৃথকভাবে চারটি প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি। বুধবার সকাল থেকে মন্ত্রী প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে নির্মিত ‘রিজিলিয়ান্স’ নামের গার্মেন্ট ইন্ডাস্ট্রি ও জামদানি পণ্য উৎপাদন কেন্দ্র, ৬ তলা বিশিষ্ট সেল ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন, পরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আধুনিক মিলনায়তন উদ্বোধন ও সবশেষ সদর উপজেলার ফতুল্লায় বিসিক শিল্প নগরীতে ফায়ার সার্ভিস উদ্বোধন করেন।

এসময় মন্ত্রী বলেন, মাদক নিয়ে সরকার বেশ কঠোর অবস্থানে আছে। কারাগারে মাদক প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হচ্ছে। যেসব স্থানে ফায়ার সার্ভিস নেই সেখানে তা করা হবে।
  
কারাবন্দীদের জন্য পোশাক কারখানা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এ কারখানাটি পর্যায়ক্রমে সারাদেশে করা হবে। অনেক কারাবন্দী তাদের পরিবার পরিজনের সঙ্গে কথা বলতে চায়। সে ক্ষেত্রে কারাগারে কঠোর নিয়ম মেনে নতুন করে টেলিফোনে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে। এমনকি প্রয়োজনে কথোপকথনের ভয়েস রেকর্ড সংরিক্ষত রাখা হবে। প্রতিটি কারাগার হলো বন্দীদের সংশোধানাগার। কারাগারে কারাবন্দীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। সব ধরনের সুযোগ সুবিধে দেওয়া হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে দেশের সকল কারাগারেই এ ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হবে। 

তিনি আরো বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে একের পর এক পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। মেটাল ডিটেক্টর বসানো হচ্ছে। কিন্তু এর ফাঁক-ফোঁকর দিয়েও মাদক ঢুকছে। তারপরেও আমরা চেষ্টা করছি যাতে কোন ভাবেই মাদক কারাগারে প্রবেশ করতে না পারে ও বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।
 
পরে মন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আধুনিকায়তন হওয়া সম্মেলন কক্ষটি উদ্বোধন করেন। সেখানে জেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাজনীতিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন মন্ত্রী। সেখানে মন্ত্রীর সামনে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন থানার গাড়ি সংকট, মাদক, মহাসড়কে যানজটের বিষয়গুলো তুলে ধরে এর সমাধান চান স্থানীয় এমপি ও রাজনীতিকেরা।
 
মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের প্রায় পুলিশ স্টেশনেই গাড়ি সমস্যা আছে। এছাড়া গত সাড়ে ৯ বছরে ৮০ হাজার পুলিশ লোকবল বৃদ্ধি করা হয়েছে। পুলিশ এখন আগের চেয়েও দক্ষ। প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় কাজ করছি। বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। মাদকের ব্যাপারে মিয়ানমারের প্রধানমন্ত্রী অং সং সূচির সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনি অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন। কারণ তার দেশেও যুব সমাজ ইয়াবায় আসক্ত হয়ে যাচ্ছে। আমি তাকে জানিয়েছি সীমান্তের আশেপাশের এসব কারখানা বন্ধ করে দিতে। তিনি আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন। আজ না হয় কাল কিন্তু এক সময়ে তা বন্ধ হবেই।’
 
হানিফ সেতুতে যানজট প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের এসপি ও ডিসিকে বলবো প্রাথমিক একটি প্রতিবেদন দিবেন কেন যানজট সৃষ্টি হয়। আমরা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিব।’
 
সবশেষ মন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার বিসিক শিল্প নগরীতে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন উদ্বোধন করেন। সেখানে মন্ত্রী বলেন, দেশের প্রতিটি অঞ্চলে ফায়ার সার্ভিস নির্মাণ করা হবে। 


বিডি প্রতিদিন/২৭ ডিসেম্বর ২০১৭/হিমেল


আপনার মন্তব্য