শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ মার্চ, ২০২০ ১৮:৫৬

করোনায় কর্মহীন ৫০ হাজার মানুষের মাঝে খাদ্যবিতরণ কর্মসূচি ডিএসসিসি'র

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় কর্মহীন ৫০ হাজার মানুষের মাঝে খাদ্যবিতরণ কর্মসূচি ডিএসসিসি'র

করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া  হতদরিদ্র মানুষের মাঝে ডিএসসিসির মাসব্যাপী খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি শুরু করলেন মেয়র সাঈদ খোকন 

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া ছিন্নমূল অসহায় ৫০ হাজার মানুষের মাঝে খাদ্যবিতরণ কর্মসূচি শুরু করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

শনিবার বিকেলে পুরান ঢাকার বাহাদুরশাহ পার্কে মাসব্যাপী এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, আমাদের নগরবাসীর অনেকেই দিন এনে দিন খায়। তাদের অনেকেই দিনমজুর। এখানে অনেক মানুষ রয়েছেন যারা নিম্নবিত্ত। করোনাভাইরাসের কারণে আজ তারা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। কাজ না থাকার কারণে তাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী জোগাড় করা দুরূহ হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনপ্রতিনিধি ও তার সরকারকে হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন।

সাঈদ খোকন বলেন, প্রধানমন্ত্রী হতদরিদ্র মানুষকে সর্বাত্মক সাহায্য এবং সহযোগিতা করার জন্য প্রদত্ত নির্দেশনা অনুসরণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন তার অধিক্ষেত্র এলাকার ৫০ হাজার পরিবারকে একমাস সম্পূর্ণ বিনামূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ থেকে আমাদের এই কার্যক্রম শুরু হলো। আমরা মাসব্যাপী এই কার্যক্রম পরিচালনা করবো। আমরা আমাদের সমস্ত চেষ্টা ও শক্তি দিয়ে এই অসহায় জনগণের পাশে দাঁড়াতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

সাঈদ খোকন আরও বলেন, আমি আপনাদের নির্বাচিত মেয়র হিসেবে-যারা এই শহরের বিত্তবান ও স্বচ্ছল রয়েছেন , যারা মানুষকে ভালোবাসেন তাদেরকেও নিজ নিজ অবস্থান থেকে এই দুঃখি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আহবান জানাচ্ছি। আমরা সবাই মিলে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করবো ইনশাআল্লাহ।

মেয়র সাঈদ বলেন, মাসব্যাপী খাদ্যসামগ্রী বিতরণের জন্য আমরা ওয়ার্ডভিত্তিক কমিটি গঠন করেছি। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সিটি করপোরেশন এবং বিভিন্ন দফতরের সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের সমন্বয়ে ছিন্নমূল কর্মহীন মানুষের তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। যতো দ্রুত সম্ভব আমরা সবার মাঝে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিব।

করোনাভাইরাস থেকে সবাইকে সচেতন হওয়ার জন্য সবাইকে আহ্বান জানিয়ে মেয়র বলেন, আজ উন্নত বিশ্বে সচেতনতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় তাদের দেশে ভয়াবহ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। তাই আমরা সবাই সচেতনতা অবলম্বন করি। আমাদের সব চাইতে বড় ভরসা আমাদের প্রধানমন্ত্রী আমাদের পাশে আছেন। আজ দুপুরেও তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি আমাকে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

আমরা সামাজিক দূরুত্ব বাজায় রাখি। একেবারেই প্রয়োজন না হলে আমরা ঘর থেকে যেন বাহির না হই। 

এসময় তার সঙ্গে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ মো. ইমদাদুল হক, ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক, সচিব মোস্তফা কামাল মজুমদার, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা উদয়ন দেওয়ানসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য