শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০২১ ১৬:৫৮
প্রিন্ট করুন printer

৫ দিন পর জানা গেল জলহস্তীটি মারা গেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

৫ দিন পর জানা গেল জলহস্তীটি মারা গেছে
ফাইল ছবি

পাঁচদিন পর জানা গেল রংপুর চিড়িয়াখানার জলহস্তীটি মারা গেছে। জলহস্তীটিকে লিয়ন বলে ডাকা হতো। শনিবার ওই জলহস্তী হঠাৎ করে মারা যায়। ওইদিনই অত্যন্ত গোপনীয়তার মধ্যে চিড়িয়াখানার পূর্বপাশে মাটিচাপা দেওয়া হয় জলহস্তীটিকে। বিষয়টি কাউকে জানানো না হলেও বৃহস্পতিবার মৃত্যুর বিষয়টি প্রকাশ হয়।

মৃত্যুকালে জলহস্তীর বয়স হয়েছিল ৩৯ বছর ৩ মাস ২ দিন। বর্তমানে আরো দুটি হলহস্তী রংপুর চিড়িয়াখানায় রয়েছে। একটি সূত্র জানিয়েছে, জলহস্তীটি আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় অসুস্থ ছিল। চিকিৎসা দিয়ে তাকে বাঁচানো যায়নি।  প্রায় ১৬ বছর আগে জলহস্তীটিকে ঢাকা থেকে রংপুর চিড়িয়াখানায় আনা হয়।

রংপুর চিড়িয়াখানায় ৩৩ প্রজাতির ২২৫ প্রাণী ছিল। এর মধ্যে মৃত্যুজনিত কারণে একটি প্রাণী কমলো। চিড়িয়াখানায় যেসব প্রাণী রয়েছে সেগুলো হলো-সিংহ দুটি, বাঘ একটি, জলহস্তী তিনটি, ময়ূর আটটি, হরিণ ৫৯টি, অজগর সাপ দুটি, ইমু তিনটি, উটপাখি একটি, বানর ৯টি, কেশওয়ারি তিনটি, গাধা তিনটি, ঘোড়া দুটি ও ভাল্লুক একটি উল্লেখযোগ্য।

দেশে দুটি সরকারি চিড়িয়াখানের মধ্যে রংপুর একটি। প্রয়াত জাপা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ রংপুর নগরীর হনুমানতলা এলাকায় ৮৯ সালে গড়ে তোলেন রংপুর চিড়িয়াখানটি। এটি দর্শনার্থীদের জন্য ৯২ সালে খুলে দেওয়া হয়। প্রায় ২১ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত এই চিড়িয়াখানা। প্রতিদিন এখানে কয়েক হাজার দর্শনার্থীন সমাগম হয়।

রংপুর চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর আম্বর আলী জানান, একটি জলহস্তী সর্বোচ্চ ৪০ বছর বাঁচে। এটি ৪০ বছর পূর্ণ হওয়ার কয়েকদিন আগে মারা যায়। এটি স্বাভাবিক মৃত্যু। তবে অন্যান্য প্রাণীগুলো ভালো আছে বলে জানান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর