শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:২৭

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃত্বের দ্বন্দ্ব মেটেনি

কাজী শাহেদ, রাজশাহী

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃত্বের দ্বন্দ্ব মেটেনি

দলের কেন্দ্রীয় সম্মেলনের আগেই জেলা ও নগরের সম্মেলন শেষ করতে তাগিদ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। কোনো অজুহাতেই সম্মেলন বন্ধ রাখা যাবে না বলে নেতাদের জানিয়ে দেন তিনি। কিন্তু কেন্দ্রের সম্মেলন ডিসেম্বরে। তার আগে কেবল সম্মেলন করতে রাজি জেলা আওয়ামী লীগ। আর নগর আওয়ামী লীগ সম্মেলন করতে চায় কেন্দ্রের পরে।

তবে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। জেলার সভাপতি-সম্পাদকের দ্বন্দ্বের কারণে নভেম্বরে সম্মেলন নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। কোন্দল মেটাতে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদকে ফের ঢাকায় তলব করেছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ।

জেলা ও নগর আওয়ামী লীগের কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে অনেক আগে। তবে ওয়ার্ড ও থানা কমিটি করে এখনই                 সম্মেলন করতে প্রস্তুত নয় নগর আওয়ামী লীগ। নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, কেন্দ্রের আগে তারা সম্মেলন করতে প্রস্তুত নন। নগরের বর্ধিত সভার তারিখ এখনো কেন্দ্র থেকে পাওয়া যায়নি। সেই তারিখ পাওয়া গেলে হয়তো বলা যাবে কবে নাগাদ সম্মেলন হচ্ছে। আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানায়, প্রকাশ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দ্বন্দ্ব ও একে অন্যকে দোষারোপ করে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার জেরে তাদের তলব করা হয়েছে। এর আগে গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর তাদের তলব করা হয়েছিল।

তবে আগামী মাসের শেষ দিকে সম্মেলন করার কথা জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। তিনি বলেন, ‘নভেম্বরের শেষের দিকে তারা সম্মেলন করতে চান। সেজন্য প্রস্তুতিও নেওয়া শুরু হয়েছে।’ আর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি বলেন, ‘৫ নভেম্বর কেন্দ্রীয় নেতারা আমাদের নিয়ে ঢাকায় বসবেন। সেখানেই সিদ্ধান্ত হবে। কেন্দ্রীয় নেতারা যেভাবে সিদ্ধান্ত দেবেন, সেভাবে সম্মেলন হবে।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, রাজশাহী জেলা ও নগরের সম্মেলন শেষ করতে স্থানীয় নেতাদের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর