শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ এপ্রিল, ২০২০ ১২:০৫

তাবলিগ ফেরত টেকনাফের ৪২ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

তাবলিগ ফেরত টেকনাফের ৪২ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে কক্সবাজার জেলার টেকনাফে ফেরত আসা তাবলিগ জামাতের ৪২ জনকে ‘হোম কোয়ারেন্টাইন’ নিশ্চিত করা হয়েছে। ফেরত আসা সকলের বাড়ি উপজেলার টেকনাফ পৌরসভা ও সাবরাং ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

বুধবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আবুল মনসুর, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কন্টিজেন্ট লে. কমান্ডার তৌকির আহমদের নেতৃত্বে বিশেষ টহলদল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা টিটু চন্দ্র শীল ও সাবরাং ইউপির চেয়ারম্যান নুর হোসেন স্ব স্ব এলাকায় গিয়ে নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা থেকে টেকনাফে ফেরত আসা তাবলিগ জামাতের ৪২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়েছে। 

এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আবুল মনসুর বলেন, যেহেতু করোনা সংক্রমণ এলাকা হিসেবে ঢাকার কয়েকটি অংশ ও নারায়ণগঞ্জকে গুরুত্বপূর্ণ ক্লাস্টার (এলাকা) হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাই ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে তাদের প্রত্যেককে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়েছে। সরকারি আদেশ অম্যান্য করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর সুস্থ ভাবে কোয়ারেন্টাইন শেষ হলে তাদের ছাড়পত্র দেওয়া হবে।

পুলিশ সূত্র জানায়, বুধবার ভোররাতে তাবলিগ জামাতের ৪২ জন মুসল্লি ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে টেকনাফে আসার সময় চকরিয়া এলাকায় পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে এসে পৌঁছালে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এরপর তাদের কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী টেকনাফে পাঠানো হয়েছে। এরপর উপজেলা প্রশাসন ৪২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠায়।

মুসল্লিদের বরাত দিয়ে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মুহাম্মদ আবুল মনসুর জানান, তারা ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে তাবলিগ জামাত শেষে এলাকায় (টেকনাফ ও সাবরাং)  এলাকায় ফিরছিলেন। গত মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে তারা টেকনাফ থেকে তাবলিগ জামাতের বের হয়েছিল। 

কক্সবাজার জেলায় এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কেউ নেই বলে দাবি করেন জেলা সিভিল সার্জন মাহবুবুর রহমান। মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত কক্সবাজার সরকারি মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৪৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে কারও করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়নি। 


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য