প্রকাশ : ২৮ মে, ২০২০ ২০:৪৫

শ্রমিকের অভাবে ধান কাটতে পারছেন না সখীপুরের কৃষকরা

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি:

শ্রমিকের অভাবে ধান কাটতে পারছেন না সখীপুরের কৃষকরা

টাঙ্গাইলের সখীপুরে শ্রমিকের অভাবে ধান কাটতে পারছেন না কৃষকেরা। ফলে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ক্ষেতের পাকা ধান। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার নলুয়া, তক্তারচালা, কচুয়া, বড় চওনা ও সখীপুর বাজারে শ্রমিক না পেয়ে বিমুখ হয়ে বাড়ি ফিরে যায় কৃষকরা। গত দুই দিন ধরে বাজারে শ্রমিক সংকট বলে জানান কৃষকরা।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে সখীপুর উপজেলায় প্রায় ১৫ হাজার ৭শত ১৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধান আবাধ করেছে কৃষকরা। ঈদের আগেই অনেক কৃষক ধান কাটার মেশিন ও শ্রমিক দিয়ে ধান কেটেছে। এখনো প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ভাগ ধান কাটেনি কৃষকরা।  

একাধিক কৃষকের সাথে কথা বলে জানা যায়, রমজান ও ঈদের কারণে ইচ্ছে করেই অনেক কৃষক ধান কাটেনি। এখন শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। স্থানীয় শ্রমিকদের মূল্য ৭৫০-৮০০ টাকা হলেও খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এতো টাকা দিয়ে শ্রমিক নিয়ে তাদের খাবার দিয়ে ধান কেটে কতটা লাভবান হবে এটাও হিসাব করছেন অনেক কৃষক। এদিকে ঝড় ও বৃষ্টির কারণে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ক্ষেতের পাকা ধান।

উপজেলার চাকদহ গ্রামের কৃষক বাবুল মিয়া বলেন, নলুয়া, তক্তারচাল ঘুরে সখীপুরে আসলাম এখানেও কোন শ্রমিক পাইলাম না। বাধ্য হয়ে বাড়ি চলে যাচ্ছি। 

উপজেলা কৃষি কর্মকতা মো. নুরুল ইসলাম বলেন, অনেক দূর দূরান্ত থেকে শ্রমিক এসে সখীপুরে ধান কাটে। লকডাউন, ঈদ এবং আবহাওয়া খারাপ থাকার কারণে রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, রৌমারিসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে শ্রমিকরা আসতে পারছে না। যে কারণে এই শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। তবে দু’এক দিনের মধ্যেই এ সংকট কেটে যাবে বলে আশা করছি।   


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর