শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ১৯:৫২
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২০:০১
প্রিন্ট করুন printer

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ খসরুর দাফন সম্পন্ন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ খসরুর দাফন সম্পন্ন
বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু

অসংখ্য মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় চিরনিন্দ্রায় শায়িত হলেন সুনামগঞ্জের বিশিষ্ট নাগরিক, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি, সাবেক পাবলিক প্রসিকিউটর, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক লেখক ও গবেষক, হাওর বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু।

বৃহস্পতিবার বেলা তিনটায় সুনামগঞ্জ পৌর শহরের ষোলঘর কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা তাঁকে। 

জেলার মুক্তিযুদ্ধ, সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক আন্দোলনে আজীবন সংগ্রামী এই বীর যুদ্ধার আকস্মিক প্রয়াণে জেলাজুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তাকে শেষ বিদায় জানাতে জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ছুটে আসেন তার অসংখ্য গুনগ্রাহী, স্বজন ও বন্ধু-বান্ধব। 

সকাল সাড়ে ১০ টায় বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরুর মরদেহ রাখা হয় তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল জেলা আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে। সেখানে তাকে আবেগঘন পরিবেশে শেষ বিদায় জানান আদালত অঙ্গনে তার সুহৃদ ও সহকর্মীরা। পরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নিয়ে  যাওয়া হয় তার মরদেহ। দুপুরে পৌরসভা চত্বরে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ মানুষ তার কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। শোকার্ত মানুষের উপস্থিতিতে ভরে ওঠে পৌরসভা আঙিনা। 

সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও বিরোধীদলের হুইপ অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহর পক্ষ থেকে বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরুর কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা। তাকে শেষ বিদায় জানান সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, জেলা আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতৃবৃন্দ প্রমুখ। 

বেলা দুইটায় হাজারো মুসল্লির উপস্থিতিতে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তার কফিনে জাতীয় পতাকায় ঢেকে দেওয়া হয় রাষ্ট্রীয় মর্যাদা। বেলা আড়াইটায় ষোলঘর জামে মসজিদের দ্বিতীয় নামাজের জানাজা শেষে  বেলা ৩ টায় ষোলঘর কবরস্থানে দাফন করা হয় তাকে। 

উল্লেখ্য, বুধবার বেলা ৩ টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তার লেখা ‘রক্তাক্ত ৭১ সুনামগঞ্জ’ বইকে জেলায় মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ের একটি প্রামাণ্য দলিল হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন অনেকে। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর