শিরোনাম
প্রকাশ : ১ মার্চ, ২০২১ ২০:০৯
প্রিন্ট করুন printer

রাঙামাটিতে বিজিবি-বিএসএফের পতাকা বৈঠক

‘সীমান্তে মাদক পাচারকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না’

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

‘সীমান্তে মাদক পাচারকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না’

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে মাদক দ্রব্য পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। শুধু মাদক নয়, অবৈধ অনুপ্রবেশ, মালামাল চোরাচালান রোধসহ সীমান্তবর্তী স্পর্শকাতর এলাকা চিহ্নিত করে উভয় দেশে সীমান্তে সচেতনতা বৃদ্ধি করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিজিবি ও বিএসএফ। 

সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর ও ভারতের অভ্যন্তরে ১৩১ বিএসএফ ব্যাটালিয়নে বিন্দাছড়া এলাকায় ভারত বাংলাদেশের সেক্টর কমান্ডার বিজিবি বান্দরবান, রাঙামাটি এবং ডিআইজি বিএসএফ, আইজল সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে সীমান্ত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। 

এসময় বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিজিবি বান্দরবানের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. কোরবান আলী ও বিএসএফ এর পক্ষে নেতৃত্ব দেন বিএসএফ আইজল সেক্টরের ডিআইজি কুলদীপ সিং। এছাড়া বাংলাদেশের পক্ষে বিজিবি বান্দরবান, খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটি সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল মো. সাহীদুর রহমান ওসমানী সহ ৫জন কর্মকর্তা ও বিএসএফ এর পক্ষে ৭ জন কর্মখর্তা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। 

বৈঠকে পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয় নিয়ে বিষদ আলোচনা হয়। এছাড়া সার্বক্ষণিক সীমান্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার কার্যক্রম গ্রহণের বিষয়ে বিজিবি-বিএসএফ উভয় পক্ষ একমত পোষণ করেন। রাঙামাটির ছোটহরিণা ব্যাটালিয়ন (১২ বিজিবি) এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বৈঠকটি শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়।  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর