শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ মার্চ, ২০২১ ২০:০৩
আপডেট : ১৬ মার্চ, ২০২১ ২০:১৭
প্রিন্ট করুন printer

‘কৃষি প্রযুক্তি, দক্ষ ব্যবস্থাপনা প্রয়োগে কৃষকদের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করা হচ্ছে’

দিনাজপুর প্রতিনিধি

‘কৃষি প্রযুক্তি, দক্ষ ব্যবস্থাপনা প্রয়োগে 
কৃষকদের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করা হচ্ছে’

কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমলা রঞ্জন দাস বলেছেন, বর্তমান কৃষক বান্ধব সরকার। বাংলাদেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ও কৃষির সার্বিক উন্নয়নে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট। কৃষক-কৃষাণীদের সাথে নিয়ে ডাল, মশলা ও শাক-সবজির উন্নয়নে অনন্য ভূমিকা পালন করে চলেছে। বৃহত্তর দিনাজপুর অঞ্চলের মানুষের জীবন-মান উন্নয়নে পুষ্টি সমৃদ্ধ ও জিংক সমৃদ্ধ ডাল, মশলা ও শাক-সবজি এবং বারি পিঁয়াজ-৪, বারি মসুর ডাল-৮, বারি মিষ্টি কুমড়া-২, বারি বেগুন-১, বারি টমেটো-২১ এর বীজ উদ্ভাবনে কৃষি মন্ত্রণালয় ও বারির নীবিড় তত্বাবধায়নে লাগসই কৃষি প্রযুক্তি দক্ষ ব্যবস্থাপনা প্রয়োগ করে কৃষকদের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করছে। 

মঙ্গলবার দিনাজপুর রাজবাড়ী কৃষি গবষেণা কেন্দ্রের মাঠে বারি মিষ্টি কুমড়া-২, বারি-বেগুন-১ এবং বারি টমেটো-২ এর উন্নত বীজ উৎপাদন শীর্ষক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 
বাংলাদেশ কৃষি গবেষনা ইনস্টিটিউট ডাল, মশলা, শাক সবজী, উন্নত পিয়াজ বীজ ও সরিষার উন্নয়নে অনন্য ভূমিকা পালন করছে বলে জানান অতিরিক্ত কৃষি সচিব কমলা রঞ্জন দাস। 

বুড়িরহাট রংপুরের আঞ্চলিক কৃষি গবেষনা কেন্দ্রের উর্ধ্বতন মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আশিষ কুমারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন বারির মহাপরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. নাজিরুল ইসলাম, বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক কৃষিবিদ ড. এম এছরাইল হোসেন, ডিএইর এডি সুধেন্দ্রনাথ নাথ রায়, ড. আমিরুজ্জামান, পরিচালক বিডবি্লউএম, আর আই, হাবিপ্রবির অধ্যাপক কীটতত্ববিদ এম. এ আহাদ, বারির পিএসও একেএম খোরশেদুজ্জামান, পিএস ও ড. মো. আল আমিন, গবেষণা কেন্দ্রের এসএসও কৃষিবিদ মো. শামসুল হুদা প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সার্বিক তত্বাবধানে ও পরিচালনায় ছিলেন কৃষিবিদ মো. শামসুল হুদা ও বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মাহবুবা খানম।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর