শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ জুন, ২০২১ ২০:৩৬
আপডেট : ১৪ জুন, ২০২১ ২১:০১
প্রিন্ট করুন printer

বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে গৃহবধূকে নির্যাতন
নির্যাতিত গৃহবধূ।
Google News

রংপুরের পীরগঞ্জে গ্রাম্য সালিশে সাক্ষী দিতে অস্বীকার করায় এক গৃহবধূকে মধ্যযুগীয় কায়দায় বাঁশের খুঁটির সাথে হাত বেঁধে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাতে উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের নিজ কাবিলপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। সোমবার রাতে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নিজ কাবিলপুর গ্রামের একজনের বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে সালিশে রহিম বাদশার স্ত্রীকে সাক্ষী দিতে বলা হয়। কিন্তু তার স্ত্রী চামেলী বেগম সাক্ষী দিতে অস্বীকার করেন। পরে রহিম বাদশার বাড়িতে গিয়ে মৃত হাছেন আলীর ছেলে সুমন ও সুরুজ মিয়াসহ বেশ কয়েকজন চামেলী বেগমকে নির্যাতন করে বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে রাখেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি তাৎক্ষণিক বিষয়টি জানতে পেরে চামেলী বেগমকে গ্রাম পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার করে। পরে তাকে পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রহিম বাদশা জানান, তার স্ত্রী অসুস্থ থাকায় সময় মতো থানায় যেতে পারেননি। রাতেই তিনি মামলা করবেন বলে জানান। এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম রবি জানান, ঘটনাটি সত্য, তাকে বেঁধে রাখা হয়েছিল।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি সরেস চন্দ্র জানান, বিষয়টি সন্ধ্যার পরে শুনেছি। খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগী অভিযোগ করেননি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর