শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ জুলাই, ২০২১ ২২:২২
প্রিন্ট করুন printer

৭৯ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা

মাদারীপুরের গ্রামীণ হাটবাজারেও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুরের গ্রামীণ হাটবাজারেও ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান
Google News

মাদারীপুরে লকডাউন কঠোরভাবে বাস্তবায়নের জন্য শনিবার (৩ জুলাই) সকাল থেকে জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন ও পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেলের নেতৃত্বে ১৬টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়েছে। 

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানকালে এসময় উপস্থিত ছিল সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার সদস্যরা। প্রশাসনের যৌথ অভিযান এখন শহর ছাড়িয়ে গ্রামীণ হাটবাজারেও চলছে। ৪ উপজেলায় শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত ৭৬ মামলায় ৭৯ হাজার ৭০০ টাকা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাস সংক্রমের ফলে সারাদেশে কঠোর লকডাউন চলছে। মাদারীপুরের ৪ উপজেলায় লকডাউন বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে সাধারণ মানুষকে সরকার ঘোষিত নির্দেশনাগুলো মেনে চলতে বলা হচ্ছে। 

লকডাউনের ফলে জেলার ঔষুধের দোকান, ফলের দোকান, কাঁচা বাজার খোলা রয়েছে। শপিংমল ও অন্যান্য দোকান বন্ধ রয়েছে। খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া মানুষকে রাস্তায় দেখা যায়নি। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. খায়রুল আমল সুমন ও জেলা তথ্য কর্মকর্তা মো. রিয়াদুল ইসলাম জেলার বিভিন্ন স্থানে গিয়ে সাধারণ মানুষকে করোনা ভাইরা সম্পর্কে সচেতন করেছেন।

মাদারীপুর পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল বলেন, লকডাউন বাস্তবায়নে আমরা জেলা পুলিশসহ সেনাবাহিনী, বিজিবি, আনসার সদস্যরা কাজ করছে। আমাদের মাদারীপুর অন্যান্য জেলা থেকে লকডাউনে পরিস্থিতি অনেক ভাল।

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, সাধারণ জনগণ এবারের লকডাউন মেনে চলছে। জনগণ কিন্তু জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। লকডাউন কার্যকর করতে আমাদের ১৬টি ভ্রাম্যমান আদালতের টিম কাজ করছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সাথে রয়েছে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, আনসার সদস্যরা। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর