শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ২২:৫৯

মানব উন্নয়ন

জোর কদমে এগিয়ে যেতে হবে

মানব উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশ গত বছরের তুলনায় দুই ধাপ এগিয়েছে। করোনাকালে চারদিকে যখন নেতিবাচক খবর অপচ্ছায়া বিস্তার করছে তখন এটি সুখবর বইকি। কারণ জাতি হিসেবে অগ্রসর দুনিয়ার কাতারে পা দিতে হলে মানব উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশকে জোর কদমে এগিয়ে যাওয়ার কোনো বিকল্প নেই। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) ২০১৯ সালের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে বাংলাদেশকে ১৮৫টি দেশের মধ্যে ১৩৫তম স্থান থেকে ১৩৩তম স্থানে উন্নীত করেছে। মানব উন্নয়নে বাংলাদেশ এখনো ১৩২টি দেশের চেয়ে পেছনে। এমনকি দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে আছে ভারত, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ ও ভুটান। বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে পাকিস্তান, নেপাল ও আফগানিস্তান। পাকিস্তান এক বছরের ব্যবধানে দুই ধাপ পিছিয়ে ১৫৪তম, নেপাল পাঁচ ধাপ এগিয়ে ১৪২তম এবং আফগানিস্তান এক ধাপ এগিয়ে ১৬৯তম অবস্থানে রয়েছে। প্রতি বছর বিভিন্ন দেশের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, আয় ও সম্পদের উৎস, বৈষম্য, লৈঙ্গিক সমতা, দারিদ্র্য, কর্মসংস্থান, নিরাপত্তা, বাণিজ্য ও আর্থিক প্রবাহ, যোগাযোগ, পরিবেশের ভারসাম্য ও জনমিতির তথ্য বিশেষণ করে মানব উন্নয়ন সূচক তৈরি করে ইউএনডিপি। এবারের মানব উন্নয়ন সূচকে আগের বছরের মতো শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে নরওয়ে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে আছে যথাক্রমে আয়ারল্যান্ড ও সুইজারল্যান্ড। আর সবার পেছনে আছে গায়ানা, লাইবেরিয়া, গিনি বিসাউ, কঙ্গো ও নাইজার। মানব উন্নয়নে বাংলাদেশ এক বছরে দুই ধাপ এগিয়ে গেলেও এতে আত্মপ্রসাদের সুযোগ নেই। কারণ এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অগ্রসর দেশগুলো থেকে এতটাই পিছিয়ে যে সাধারণ মানে পৌঁছাতেও বিস্তর সময় নেবে। মানব উন্নয়নের বর্তমান হালহকিকতে মধ্যমানের দেশে পরিণত হওয়াও দিবাস্বপ্নের নামান্তর। এ লজ্জা থেকে বেরিয়ে আসতে মানব উন্নয়নে আরও বেশি যত্নবান হতে হবে। দ্রুত এগিয়ে যাওয়ার কৌশল

নির্ধারণ করতে হবে। এটিই একমাত্র যথার্থ পথ।

 

 

 


আপনার মন্তব্য