শিরোনাম
শুক্রবার, ৩ জুন, ২০২২ ০০:০০ টা

মজুদবিরোধী অভিযান

মুনাফার লকলকে জিব সংবরণ হোক

চাল মজুদ করে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেছে বাজার মনিটরিং টিম। ভরা মৌসুমেও চালের দাম গড়ে প্রায় ১০ শতাংশ বৃদ্ধির কারসাজি ঠেকাতে সরকারের কড়া মনোভাবের প্রতিফলন ঘটেছে সাঁড়াশি অভিযানে। চলতি বছর আগের চেয়েও বেশি বোরো ধান উৎপাদন সত্ত্বেও বাজারে এখনো আসেনি পর্যাপ্ত নতুন চাল। নতুন বোরো ধান গুদামজাত করে চাল ব্যবসায়ীরা পুরনো চালের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন বাড়তি মুনাফা অর্জনের উদ্দেশ্যে। তাদের অপতৎপরতা ঠেকাতেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে অভিযান। বুধবার চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশের পর দেশের সরু চালের সবচেয়ে বড় মোকাম কুষ্টিয়ার খাজানগরে অভিযান পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে গঠিত বাজার মনিটরিং টিম। অভিযানে দুই রাইস মিল মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বরিশালে চালের বাজার স্থিতিশীল রাখতে এবং অবৈধ মজুদ প্রতিরোধে পৃথক অভিযান চালিয়েছে খাদ্য অধিদফতর ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

এ সময় পাঁচ প্রতিষ্ঠান থেকে ১ লাখ ৯ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। বুধবার বেলা ১১টার দিকে মহানগরের ফরিয়াপট্টিতে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এ সময় চালের আড়তে মূল্য তালিকা না থাকা ও অতিরিক্ত দামে চাল বিক্রির দায়ে চার প্রতিষ্ঠানকে ৫৯ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। দিনাজপুরে মূল্য তালিকাবিহীন ব্যবসা পরিচালনা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে চাল প্রক্রিয়াজাতকরণের দায়ে তিন প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা অধিকার আইনে জরিমানা আদায়সহ সতর্ক করা হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুড়িগ্রাম, নাটোর, ফরিদপুর, বগুড়াসহ বিভিন্ন জেলায় মজুদবিরোধী অভিযান চালানো হচ্ছে জোরেশোরে। সরকারি গুদামগুলোয় রেকর্ড পরিমাণ খাদ্যশস্য মজুদ ও বোরো ধানের রেকর্ড উৎপাদন সত্ত্বেও চলতি বছর ভরা মৌসুমে চালের দাম বৃদ্ধির কারসাজিতে মেতেছে কোনো কোনো মহল। সরকারের কড়া মনোভাবে তাদের মুনাফার লকলকে জিব সংবরণ করলে তা হবে ভোক্তাদের জন্য এক অর্জন।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর