Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০৯:৪২

রিকশায় তোয়ালে পেতে বসে আবারও বিতর্কে জড়ালেন মিমি

অনলাইন ডেস্ক

রিকশায় তোয়ালে পেতে বসে আবারও বিতর্কে জড়ালেন মিমি

টালিউডের অভিনেত্রী তথা ওপার বাংলার যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী আবারও বিতর্কে জড়ালেন। রিকশায় তোয়ালে পেতে বসার কারণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে শুরু হয়েছে ব্যাপক ট্রোলিং। 

এর আগে এই অভিনেত্রী ভোটের প্রচারে হাতে দস্তানা পরে মানুষের সঙ্গে হাত মেলানো নিয়েও সমালোচিত হয়েছিলেন।

এবার সোমবার নিজের শহর জলপাইগুড়িতে তৃণমূল প্রার্থী বিজয়চন্দ্র বর্মনের হয়ে প্রচারে যান তিনি। সেখানে পাণ্ডাপাড়ার বাড়ি থেকে রিকশায় চেপে মন্দিরে পুজা দিতে যান। রিকশায় তোয়ালে পেতে বসা মিমির সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি। শুরু হয় সমালোচনা।
পশ্চিমবঙ্গের সামাজিক যোগাযোগ ব্যবহারকারীদের ইউজারদের একাংশের প্রশ্ন, সাধারণ মানুষের সঙ্গে একাত্ম হতে যার এত আপত্তি, তিনি দেশ সেবা করবেন কীভাবে? 

ফেসবুকে সৈকত সরকার নামের এক ব্যক্তি লেখেন, 'এই ধরনের আচার-আচরণ ক্রমশ অসহনীয় হয়ে উঠছে। তোয়ালে ছাড়া রিকশায় উঠতে পারেন না উনি। দস্তানা না পরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে হাত মেলাতে পারেন না। সেই সঙ্গে সারাক্ষণ চেহারায় ঔদ্ধত্য।'

অরিন্দম সরকার নামের আর এক ব্যক্তির কথায়, 'হাতে দস্তানা পরে পথসভা করতে যান মিমি চক্রবর্তী। রিকশার সিটে তোয়ালে পেতে বসেন। ইনি নাকি সাংসদ হবেন, দেশসেবা করবেন!'

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, সোমবার পাণ্ডাপাড়ার এক রিকশাওয়ালার রিকশাতেই উঠেছিলেন মিমি, যাকে ছোটবেলায় মামা বলে ডাকতেন তিনি। সেই মামাই রিকশায় তোয়ালে পেতে রেখেছিলেন নাকি মিমির নির্দেশে তোয়ালে পাতা হয়, তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিং নিয়ে এখনও কোনো বক্তব্য দেননি মিমি।

গ্ল্যামার দুনিয়া থেকে সদ্য রাজনীতির ময়দানে পা রেখেছেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। ভারতের লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর থেকে তৃণমূলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনি।


আপনার মন্তব্য