শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ মে, ২০২০ ১৫:৫২

স্ত্রীর সামনে দিয়েই নওয়াজের ঘরে ঢুকতেন বান্ধবীরা

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রীর সামনে দিয়েই নওয়াজের ঘরে ঢুকতেন বান্ধবীরা

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির সঙ্গে আলিয়া সিদ্দিকির বিচ্ছেদ নিয়ে সরগরম ফের মিডিয়া। নওয়াজের সঙ্গে কেন থাকবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আলিয়াকে ওরফে অঞ্জলি কিশোর পান্ডে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, গত ২-৩ বছর ধরে নওয়াজের সংসার ত্যাগ করেছেন তিনি। নওয়াজের সঙ্গে থাকেন না কারণ তার বেড়ে চলা খারাপ ব্যবহারের জন্য।

একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে আলিয়া জানান, নওয়াজ তার গায়ে হাত না তুললেও, অত্যন্ত খারাপ ব্যবহার করতেন তার সঙ্গে। বিয়ের সময় যখন নওয়াজের কিছু ছিল না, তখন থেকে তার দেখভাল করেন তিনি। কিন্তু গ্যাংস অব ওয়াসেপুরের সাফল্যের পর থেকেই পাল্টাতে শুরু করে নওয়াজের ব্যবহার। নাম, যশ যত বাড়তে শুরু করে, নওয়াজের ব্যবহারও পালটাতে শুরু করে। এমনকী, নওয়াজের বান্ধবীরা বাড়িতে এলে, তার সামনে দিয়েই নওয়াজের ঘরে ঢুকতেন। তিনি সেখান থেকে বেরিয়ে যেতেন বলে জানান আলিয়া।

পাশাপাশি তিনি আরও জানান, বিয়ের পর প্রথম সন্তানের জন্মের পর নওয়াজকে ছেড়ে একা থাকতেন তিনি। ওই সময় তার বাবা-মাও সম্পর্ক ত্যাগ করেছিলেন তার সঙ্গে। অন্য ধর্মে বিয়ে হওয়ায় বাবা-মায়ের সঙ্গেও কোনও সম্পর্ক ছিল না। ফলে প্রথম সন্তান জন্মের পর ১৫ হাজার টাকা ঘর ভাড়া দিয়ে একা চলতেন তিনি। পরে নওয়াজ তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে, জীবনকে আরও একবার দেখে নিতে চান মনে করে ফিরে আসেন। কিন্তু নওয়াজের ব্যবহার এরপর থেকে আরও খারাপ হতে শুরু করে। 

আলিয়ার দাবি, তাদের যিনি বিয়ে করিয়েছিলেন, সেই মৌলবীর টাকা থেকে শুরু করে প্রথম সন্তানের জন্মের সমস্ত খরচ তিনিই চালিয়েছেন। নওয়াজ তখন খরচ করার মতো অবস্থায় ছিলেন না। সেই সময় থেকে নওয়াজের ক্যারিয়ার যখন এক্কেবারে চরমে, তখন তাকে ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ফলে আলিয়া একেবারেই নওয়াজউদ্দিনের নাম, যশের পিছনে ছুটছেন না, তা স্পষ্ট বলে দাবি করেন অভিনেতার স্ত্রী।

এসবে পাশপাশি তিনি আরও বলেন, নিজের প্রযোজনা সংস্থা শুরু করেছেন তিনি। যদিও তার অবস্থা খুব একটা ভাল নয়। তবে কষ্ট করে রোজগার করে সন্তানদের বড় করে তুলবেন। নওয়াজের সঙ্গে থাকলে, তার সন্তানরা কী শিক্ষা নিয়ে বড় হবে বলেও প্রশ্ন তোলেন তিনি। শুধু তাই নয়, নওয়াজ কখনও ভাবতে পারেননি, আলিয়া তার কাছ থেকে সরে যাবেন কিংবা বিচ্ছেদ চাইবেন। তাই যখন বিচ্ছেদের কথা নওয়াজের সামনে তোলেন তিনি, তখন তাকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, 'যা ইচ্ছা করো'। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর