শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ আগস্ট, ২০২০ ২০:৫১
আপডেট : ৫ আগস্ট, ২০২০ ০০:০৫

উদ্ভট হওয়ার জন্য প্রপঞ্চ কি কি থাকবে সেটা নিয়ে বিতর্ক হতেই পারে!

ইফতেখায়রুল ইসলাম

উদ্ভট হওয়ার জন্য প্রপঞ্চ কি কি থাকবে সেটা নিয়ে বিতর্ক হতেই পারে!
ইফতেখায়রুল ইসলাম

কারও ছোট চুল, বড় চুল নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই! এমনকি কারও চুলের রং কি রূপ হবে সেটা নিয়েও কিছু বলার নেই!

আমি শুধু এতটুকু জানি, ব্যক্তিগতভাবে উদ্ভট যে কোনো কিছুই অপছন্দ করি! এখন উদ্ভট হওয়ার জন্য প্রপঞ্চ কি কি থাকবে সেটা নিয়ে একটা বিতর্ক হয়ে যেতেই পারে! সহজ ও স্বাভাবিক ভাষায় বলতে গেলে, যে প্রকাশ বা আচরণ দেখলে অদ্ভুত বিরক্তি অথবা মন্দ লাগা অনুভূতির সৃষ্টি হয় অথবা যা স্বাভাবিকতা হারিয়ে ফেলে সেটিকেই উদ্ভট বলতে চাই! এটা শুধুই আমার বলা!

অনেকেই অনেক সুযুক্তি উপস্থাপন করছেন নানা রং ও ঢংয়ের কেশ বিন্যাস নিয়ে। করতেই পারেন যার যার স্বাধীনতা, তবে এটা বেশ জোর গলায় বলা যেতেই পারে যে, তাদের পরিবারের ভাই অথবা ছেলে এই রঙে নিজের কেশরাজি তথা চুলকে রাঙাতে চাইলে, বেতের বাড়ি তারা একটাও মাটিতে পড়তে দিতেন না!

আপনি সকল বিষয়েই সহনশীল সেই ক্ষেত্র প্রমাণ করতে গিয়ে, যা ইচ্ছে তা না বলাই ভালো! যে বিষয়ে সমর্থন নিজ সন্তানের জন্য এক এবং অন্যের সন্তানের জন্য আরেক সেই বিষয় নিয়ে কথা বেশিদূর না আগানোই উত্তম, এতে হাঁটে হাঁড়ি ভাঙতে পারে।

লেখক: অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, পল্লবী জোন গোয়েন্দা বিভাগ (ডিএমপি)।

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর