শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:২৯

মার্কিন পররাষ্ট্রনীতিতে বড় পরিবর্তন আসতে পারে

------ ড. ইমতিয়াজ আহমেদ

জুলকার নাইন

মার্কিন পররাষ্ট্রনীতিতে বড় পরিবর্তন আসতে পারে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সারাজীবন পররাষ্ট্রনীতি নিয়েই কাজ করেছেন। ওয়াশিংটন ডিসির সঙ্গে জো বাইডেনের রাজনীতির গাঁথুনি রয়েছে। তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো নন।  ট্রাম্প প্রশাসন যুক্তরাষ্ট্রকে রীতিমতো একটি অস্বস্তির জায়গায় নিয়ে গিয়ে ছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র ইউরোপিয়ান রাষ্ট্র, জাপান এমনকি আমাদের পাশের দেশ ভারতও এই অস্বস্তিতে ছিল। এক্ষেত্রে জো বাইডেন অবশ্যই বড় ধরনের একটি পরিবর্তন নিয়ে আসবেন। গতকাল বাংলাদেশ প্রতিদিনের সঙ্গে আলাপচারিতায় তিনি এসব কথা বলেন। ড. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, জো বাইডেন চাইবেন সার্বিক স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি বিলে স্বাক্ষর করেছেন, যা পরিবর্তনের ইঙ্গিত। তিনি পররাষ্ট্রনীতিতে বড় ধরনের পরিবর্তন আনতে চেষ্টা করবেন বলে মনে করি। তবে এ চেষ্টা অবশ্যই তার জন্য চ্যালেঞ্জ হবে বলা যায়। ডোনাল্ড ট্রাম্প বিশ্বায়ন থেকে যেভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে বিচ্ছিন্ন করেছিলেন, সেখানে আবারও সম্পৃক্ত হওয়া চ্যালেঞ্জই বটে। ট্রাম্পের নীতির অবসানের মধ্য দিয়ে বাইডেন আমলে ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কের উন্নয়নের চেষ্টা হতেই পারে। এ ছাড়া করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র যদি বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে যেতে না পারে, তাহলে অর্থনীতির মন্দা সামলে আনা জটিল হবে।

 জো বাইডেন পুনরায় বিশ্বব্যবস্থায় সম্পৃক্ত হওয়ার চেষ্টা করবেন। ড. ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, অর্থনীতি, উন্নয়ন এবং ভূরাজনীতির বিবেচনায় বাংলাদেশের গুরুত্ব বাড়ছে এবং জো বাইডেন বাংলাদেশের এই এগিয়ে যাওয়ায় অবশ্যই নজর রাখবেন। তবে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে তেমন কোনো পরিবর্তন হবে বলে মনে করি না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর