মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ, ২০২৪ ০০:০০ টা

ভুটানের সঙ্গে তিন সমঝোতা ও চুক্তি

রাজা ও রানিকে ঢাকায় লাল গালিচা সংবর্ধনা, আজ যোগ দেবেন স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

ভুটানের সঙ্গে তিন সমঝোতা ও চুক্তি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গতকাল ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ও রানি জেৎসুন পেমা ছবি : পিআইডি

চার দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে ঢাকা এসেছেন ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ও রানি জেৎসুন পেমা। গতকাল তাঁদের সফরের প্রথম দিনই বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে তিনটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে ও নবায়ন করা হয়েছে পুরনো একটি চুক্তি। ভুটানের রাজা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে এসব চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গতকাল সকালে ঢাকা পৌঁছান ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক ও রানি জেৎসুন পেমা। বিমানবন্দরে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও তাঁর স্ত্রী রেবেকা সুলতানা তাঁদের উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। বিমানবন্দরে রাষ্ট্রীয় অতিথিদের লাল গালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকশ দল তাঁদের গার্ড অব অনার দেয়। পরে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন এবং জাতির পিতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান রাজা।

বাংলাদেশ সফররত ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক গতকাল ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা ও নাতনি সায়মা ওয়াজেদ পুতুল - বাংলাদেশ প্রতিদিন

ভুটানের রাজা দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছালে টাইগার গেটে তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শিমুল হলে একান্ত বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী ও রাজা। একান্ত বৈঠক শেষে তাঁরা দুই দেশের প্রতিনিধি দল নিয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর তাঁদের উপস্থিতিতে সমঝোতা স্মারক ও চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এসব সমঝোতা স্মারকের আওতায় ভুটানের থিম্পুতে একটি বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট করে দেবে বাংলাদেশ। কুড়িগ্রামে ভুটানের জন্য একটি বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা হবে। এ ছাড়া ভোক্তা সুরক্ষায় প্রযুক্তিগত সহযোগিতা জোরদার করা হবে দুই দেশের মধ্যে। আর সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে সহযোগিতার বিষয়ে আগে যে চুক্তি রয়েছে, তা আবার নবায়ন করেছে দুই দেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, সমঝোতার আওতায় থিম্পুতে একটি বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট প্রতিষ্ঠার উদ্যোগের মাধ্যমে দক্ষিণ এশীয় অঞ্চলের বৃহত্তর কল্যাণ সাধন হবে। কুড়িগ্রামে একটি বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার জন্য ভুটানকে ১৯০ একর জমি দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। সেখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিনিয়োগ করবে। বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশে, বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলে ব্যবসা-বাণিজ্য, বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে এবং দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে। আগামী বছর থেকে বাংলাদেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোয় এমবিবিএস কোর্সে ভুটানের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ আসন ২২ থেকে বাড়িয়ে ৩০ করা হবে। প্রতি বছর ভুটানের ফরেন সার্ভিস অফিসারদের জন্য বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে প্রশিক্ষণের জন্য দুটি আসন বরাদ্দ করা হবে। বাংলাদেশ ফরেন সার্ভিস একাডেমি ভুটানে একটি কূটনৈতিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজনীয় কারিগরি সহযোগিতা দেবে। বাংলাদেশ এগ্রিকালচারাল রিসার্চ কাউন্সিলে ভুটানের কৃষিবিষয়ক কর্মকর্তাদের বিভিন্ন মেয়াদে তিন বছরব্যাপী প্রশিক্ষণ প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে। একই সঙ্গে ভুটানের সরকারি কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও দক্ষতা উন্নয়নের জন্য ল্যাপটপ, ট্যাবসহ ইলেকট্রনিক ডিভাইস উপহার হিসেবে দেবে বাংলাদেশ।

সফরসূচি অনুসারে ভুটানের রাজা আজ স্বাধীনতা দিবসের ভোরে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করবেন। পরে তিনি শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট পরিদর্শন করবেন। বিকালে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বঙ্গভবনে সৌজন্য সাক্ষাতের পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। আগামীকাল পদ্মা সেতু পরিদর্শনে যাবেন ভুটানের রাজা। এরপর বাংলাদেশ স্পেশাল ইকোনমিক জোন পরিদর্শনে যাবেন নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে। বৃহস্পতিবার সকালে বিমানে কুড়িগ্রামে বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চল পরিদর্শন করতে যাবেন তিনি। কুড়িগ্রামের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ওই দিন বিকালে সোনাহাট স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন ভুটানের রাজা ও রানি।

সর্বশেষ খবর