শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২ জুন, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ জুন, ২০২০ ২৩:০১

ব্রিটিশ গবেষকদের দাবি

তামায় মারা যায় করোনাভাইরাস

তামার প্রলেপ দেওয়া বস্তুতে করোনাভাইরাস দ্রুত প্রাণ হারায় বলে এক ব্রিটিশ গবেষক দাবি করেছেন। ওই গবেষকদের দাবি, করোনা মহামারী প্রতিরোধে দরজার হাতল, সিঁড়ির হ্যান্ডরেইল ও শপিংট্রলির হাতলে তামার প্রলেপ দেওয়া উচিত। কারণ লোহা ও প্লাস্টিকের ওপর করোনাভাইরাস তিন দিন পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে। কিন্তু তামার ওপর পড়লে মাত্র চার ঘণ্টায় প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটি নিজেই প্রাণহীন হয়ে যায়। খবর ডেইলি মেইলের। প্রায় দুই দশক ধরে তামার অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল প্রভাব নিয়ে গবেষণা করছেন ইউনিভার্সিটি অব সাউদাম্পটনের সিনিয়র মাইক্রোবায়োলজিস্ট উইলিয়াম কেভিল। শনিবার ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টাইমসকে তিনি বলেন, করোনায় আক্রান্ত কোনো ব্যক্তি হাতের ওপর হাঁচি-কাশি দেওয়ার পর সে হাত দিয়ে অন্য কোনো ব্যক্তি বা বস্তুকে স্পর্শ করার মাধ্যমেই ভাইরাস ছড়ায়। রোগীর স্পর্শ করা বস্তু স্পর্শের পর সে হাত মুখে দিলে যে কেউ আক্রান্ত হতে পারেন।

করোনাভাইরাস মূলত মানুষের চোখ, নাক ও মুখ দিয়ে শরীরে প্রবেশ করে, চামড়ার ভিতর দিয়ে নয়। এ কারণে বাড়িঘর, গণপরিবহনে দরজার হাতলগুলোতে তামার প্রলেপ দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন এ গবেষক।


আপনার মন্তব্য