শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪০

চুরি করা অর্থে পরমাণু কর্মসূচি চালায় উ. কোরিয়া

উত্তর কোরিয়া কঠোর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে গত বছর নিজের পরমাণু অস্ত্র ও ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে গেছে বলে জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। তাতে দাবি করা হয়েছে, পিয়ংইয়ং পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি নিজের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের অবকাঠামোর আধুনিকীকরণ করেছে। রয়টার্স জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়া তার পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচির জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি বিদেশ থেকে সংগ্রহ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির কারণে উত্তর কোরিয়ার ওপর জাতিসংঘের কঠোর নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। আমেরিকা এসব নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন করার পাশাপাশি নিজে থেকেও উত্তর কোরিয়ার ওপর আরও অনেক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে রেখেছে। জাতিসংঘের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, একটি সদস্য দেশ বলেছে, সাইবার হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে চুরি করা মার্কিন ডলার থেকে পরমাণু অস্ত্র এবং ক্ষেপণাস্ত্র প্রকল্পের জন্য অর্থ পেয়েছে উত্তর কোরিয়া। সদস্য দেশটির বরাতে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘২০১৯ সাল থেকে ২০২০ সালের নভেম্বর পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ার চুরি করা এই ভার্চুয়াল সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৩১ কোটি ৬৪ লাখ মার্কিন ডলার। যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ‘উত্তর কোরিয়া নিষেধাজ্ঞা বিষয়ক কমিটি’ তাদের বার্ষিক এ প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সোমবার জানান, নতুন প্রশাসন উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সব আলোচনা নতুন করে শুরু করতে চায়। উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং যুক্তরষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে তিনবার দেখা করেছিলেন। কিন্তু তাদের সেই বৈঠক ফলাফল শূন্য ছিল।


আপনার মন্তব্য