শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৫০

‘পুরুষ নির্যাতন’ হেল্পলাইনে ফোনের বন্যা

Google News

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে পারিবারিক সহিংসতা বেড়েছে বলে নানা গবেষণায় দাবি করা হচ্ছে। বিশ্বজুড়ে এই নির্যাতনের বড় শিকার বলা হচ্ছে নারীরা। এ নিয়ে সমাজতাত্ত্বিকদের দুশ্চিন্তার শেষ নেই। কিন্তু জার্মানিতে ঘটছে অন্য ঘটনা। জার্মানিতে পুরুষের বিরুদ্ধে সহিংসতা সংক্রান্ত একটি হেল্পলাইন খোলার পর থেকেই ফোনের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। জানা যায়, জার্মানির নর্থ রাইন ওয়েস্টফালিয়া ও বাভারিয়া রাজ্যে এই হেল্পলাইন খোলা হয়েছিল। গত এক বছরে সেখানে ১ হাজার ৮০০টিরও বেশি ফোনকল গেছে। প্রতিদিন কল এসেছে গড়ে ছয় থেকে নয়টি। এর মধ্যে ৩৫ শতাংশ ফোনকলই এসেছে দেশটির সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য নর্থ রাইন ওয়েস্টফালিয়া থেকে। বাভারিয়া থেকে কল এসেছে ১৮ শতাংশ। বাকি ফোনকলগুলো অন্য রাজ্য থেকে এসেছে। এই অবস্থা দেখে কর্তৃপক্ষ হেল্পলাইন খোলা রাখার সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সম্প্রতি দেশটির বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গ রাজ্যও পুরুষ নির্যাতন হেল্পলাইন চালু করতে চলেছে। নর্থ রাইন ওয়েস্টফালিয়ার সমানাধিকার মন্ত্রী বলেছেন, এর মাধ্যমে পুরুষরা নির্যাতিত হলেও ভয়-লজ্জা দূরে সরিয়ে তা স্বীকার করে নিচ্ছেন।

তার মতে, নারী নির্যাতনের মতো পুরুষ নির্যাতন নিয়েও খোলাখুলি কথা বলা দরকার।  পরিসংখ্যান বলছে, যারা ফোন করেছেন তাদের মধ্যে অন্তত চারভাগের মধ্যে তিনভাগই ৫১ বছরের কম বয়সী পুরুষ। হেল্পলাইনে কল করে ৫৩ শতাংশ পুরুষ শারীরিক বা যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন। ৮৫ শতাংশ মানসিক নির্যাতনের কথা জানিয়েছেন। ৭০ শতাংশ পুরুষ বলেছেন, তারা খুবই সহিংস পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছেন। অধিকাংশ পুরুষই তাদের বর্তমান বা সাবেক জীবনসঙ্গীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন।

এই বিভাগের আরও খবর