শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ জুলাই, ২০২১ ২৩:২৬

মৃত্যুদন্ড নিষিদ্ধ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে

Google News

অপরাধ যতই ঘৃণ্য হোক, রাষ্ট্র কি তার জন্য অপরাধীকে মৃত্যুদন্ড দিতে পারে? এই বিতর্ক আজকের নয়। যুক্তরাষ্ট্রেও এ প্রশ্ন উঠেছে বারবার। নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আমলে নতুন করে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে এ বিষয়ে। আমেরিকার বিচার বিভাগীয় দফতর মৃত্যুদ  নিয়ে পর্যালোচনা করছে। এ পরিস্থিতিতে সব মৃত্যুদন্ডের রায়ে সাময়িক স্থগিতাদেশ জারি করলেন মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল মেরিক গারল্যান্ড। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, ‘বিচার বিভাগকে এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, আমেরিকায় যুক্তরাষ্ট্রীয় বিচার বিভাগীয় পরিকাঠামোয় সবাইকে সংবিধানের দেওয়া মার্কিন আইনের সুযোগই কেবল দেওয়া হচ্ছে না। সেই সঙ্গে তাদের বিচার স্বচ্ছ ও মানবিকভাবে করা হচ্ছে।’ গত বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে এ বছরের গোড়ায় ট্রাম্প সরকারের বিদায়ের আগে পর্যন্ত আমেরিকায় ১৩ জনকে মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত করা হয়েছে। উনবিংশ শতাব্দীর সময় থেকে আর কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের আমলে এত অল্প সময়ে এতজনকে মৃত্যুদন্ড দেওয়া হয়নি।

ক্ষমতায় আসার আগে নির্বাচনী প্রচারে জো বাইডেন দাবি করেছিলেন, তিনি ক্ষমতায় এলে মৃত্যুদ  রদে আইন করার দিকে অগ্রসর হবেন। এবার মৃত্যুদ  সাময়িকভাবে স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত থেকে পরিষ্কার, সম্ভবত সেদিকেই এগোতে চলেছে আমেরিকা।

অ্যাটর্নি জেনারেল মেরিক গারল্যান্ড জানিয়েছেন, তিনি ব্যক্তিগতভাবে পর্যালোচনা করেছেন বর্তমানে মৃত্যুদে র রায়দানের পদ্ধতিগুলোর বিষয়ে। কোনো নিরপরাধ ব্যক্তির যাতে মৃত্যুদ  না হয়, সে বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তিনি। প্রসঙ্গত, বর্তমানে ৪৬ বন্দীর মৃত্যুদে র আদেশ স্থগিত রয়েছে। এঁদের মধ্যে ২০ জন শ্বেতাঙ্গ, ১৮ জন কৃষ্ণাঙ্গ, সাতজন লাতিন ও একজন এশিয়ান।

এই বিভাগের আরও খবর