শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুলাই, ২০১৯ ০০:১৪

শেয়ারবাজারে দরপতন অব্যাহত, বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক

শেয়ারবাজারে দরপতন অব্যাহত, বিক্ষোভ

পুঁজিবাজারে টানা দরপতনে বিক্ষোভ করেছেন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা। গতকালও ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সামনে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা বিক্ষোভ করেন। বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে আয়োজিত এ বিক্ষোভ থেকে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যানের পদত্যাগ দাবি করেন। বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মিজান উর রশিদ চৌধুরী বলেন, ‘বিএসইসির বর্তমান চেয়ারম্যানকে দায়িত্বে রেখে শেয়ারবাজার ভালো করা যাবে না। আমরা তার পদত্যাগ চাই।’ তিনি বলেন, ‘দরপতনের প্রতিবাদে রোজার ঈদের আগেও মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছি। প্রতীকী গণঅনশন করেছি।’ সূচকের পতন ঠেকাতে কেউ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে বিনিয়োগকারীদের অভিযোগ। পতন ঠেকাতে তাদের দাবিগুলো না মানা হলে লাগাতার কঠোর আন্দোলনের হুমকি দেন বিনিয়োগকারীরা। বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫২২২ পয়েন্টে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে ১৮৫৭ পয়েন্টে নেমে গেছে। আর শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১১৯৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে ১০৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার বিপরীতে কমেছে ২১৯টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির। সূচকের পতনের পাশাপাশি ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও কমেছে। ১১ কার্যদিবস পর বাজার আবারও লেনদেনের পরিমাণ ৩০০ কোটি টাকার ঘরে নেমে এসেছে। দিনভর বাজারে ৩৫১ কোটি ৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪০৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। অর্থাৎ এক দিনেই লেনদেন কমেছে ৫৭ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৫৯৭২ পয়েন্টে। বাজারে হাত বদল হওয়া ২৬৩টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৬টির, কমেছে ১৭৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির। এদিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ২২ লাখ টাকা।

এদিকে বন্ধের পথে থাকা পিপলস লিজিংয়ের শেয়ারহোল্ডাররা চরম হতাশা আর আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। কোম্পানিটির কোনো শেয়ার কেউ কিনছে না। নামমাত্র মূল্যে বিক্রির প্রস্তাব দিলেও ক্রেতার অভাবে শেয়ার বিক্রি করতে পারছেন না শেয়ারহোল্ডাররা। এর নেতিবাচক প্রভাবও পড়ছে শেয়ারবাজারে।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর