শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০৬

গ্যাস বিস্ফোরণে মায়ের পর মৃত্যু ছেলেরও

নিজস্ব প্রতিবেদক

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে সাহেবপাড়া এলাকায় জমে থাকা গ্যাস বিস্ফোরণে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় মায়ের পর এবার ছেলেও মারা গেছেন। তিনি হলেন কিরণ মিয়া (৫০)। সোমবার রাত ১২টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে আগুনের ঘটনায় দুজনের মৃত্যু হলো। আগুনে তার শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে যায়। এর আগে সোমবার বেলা সোয়া ১১টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান কিরণের মা নূরজাহান বেগম (৭০)। ঢামেক সূত্র জানায়, ঢামেক মর্গে কিরণের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার ভোরে সিদ্ধিরগঞ্জ ও ফতুল্লা থানা সীমান্তবর্তী সাইন বোর্ড সাহেব পাড়া এলাকার একটি বাসায় জমে থাকা গ্যাস বিস্ফোরণে একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ হন। এর মধ্যে আবুল হোসেন ইমন (২৩), তার ছোট ভাই মাদ্রাসাছাত্র আপন (১০), তাদের চাচা মো. হিরণ মিয়া (৩০), হিরণের স্ত্রী মুক্তা বেগম (২০), তাদের মেয়ে লিমা (৩) এবং ইমনের ফুপাতো ভাই স্কুলছাত্র কাউছার আহমেদ (১৩) ঢামেকে চিকিৎসাধীন।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, দগ্ধদের মধ্যে ইমনের শরীরের ৪৫ শতাংশ, হিরণের ২২ শতাংশ, কাউছারের ২৫ শতাংশ, মুক্তার ১৫ শতাংশ, লিমার ১৪ শতাংশ ও আপনের শরীরের ২০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। মারা যাওয়া কিরণ ও নূরজাহানের শরীরের ৭০ শতাংশ এবং ১০০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর