শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ জুন, ২০২১ ২৩:১৮

কর্মক্ষেত্রের ক্ষোভ থেকে প্রকৌশলী দেলোয়ারকে হত্যা

তিনজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট

নিজস্ব প্রতিবেদক

কর্মক্ষেত্রের ক্ষোভ থেকে প্রকৌশলী দেলোয়ারকে হত্যা
Google News

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতার তিনজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। ৩০ এপ্রিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তুরাগ থানার পরিদর্শক (অপারেশন্স) শেখ মফিজুল ইসলাম ঢাকা মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

এতে উল্লেখ করা হয়েছে, কর্মক্ষেত্রে ক্ষোভ থেকেই এ হত্যাকান্ড। তবে দেলোয়ারের পরিবার তা বিশ্বাস করছে না।

অভিযুক্তরা হলেন প্রকৌশলী মো. সেলিম ওরফে আনিস হাওলাদার, ভাড়াটে সন্ত্রাসী হেলাল হাওলাদার শাহিন ও মাইক্রোবাসের চালক হাবিবুর রহমান খান। অন্যদিকে নিহত দেলোয়ারের স্ত্রী খোদেজা বেগমের দাবি, ‘কর্মক্ষেত্রে ছোটখাটো বিষয় নিয়ে অনেকের মাঝেই মনোমালিন্য ও ক্ষোভ হতে পারে। শুধু ক্ষোভ থেকেই আমার স্বামীকে হত্যা করা হয়েছে, তা বিশ্বাস হয় না। পরিবারের সবার সঙ্গে বসে চার্জশিটের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।’

উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ মে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ী জোনের প্রকৌশলী দেলোয়ার হোসেন মিরপুরের বাসা থেকে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে খুন হন। ওই দিনই উত্তরার ১৭ নম্বর সেক্টরের ৫ নম্বর ব্রিজের পশ্চিমে একটি জঙ্গল থেকে তার লাশ উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় তার স্ত্রী খোদেজা বেগম বাদী হয়ে তুরাগ থানায় হত্যা মামলা করেন। পরে তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর মধ্যে শাহিন ও হাবিব গত বছরের ২১ মে এ হত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে শাহিন নিজেকে ভাড়াটে খুনি বলে উল্লেখ করেন। ২৭ মে আদালতে জবানবন্দি দেন আনিস। তখন পুলিশ জানায়, কর্মস্থলে দ্বন্দ্বের জেরে আনিসের পরিকল্পনায় দেলোয়ার খুন হন।