২ আগস্ট, ২০২১ ১১:৫৫

প্রতিদিন ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাথরুমে কাটান স্বামী, নেটমাধ্যমে সাহায্য চাইলেন স্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

প্রতিদিন ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাথরুমে কাটান স্বামী, নেটমাধ্যমে সাহায্য চাইলেন স্ত্রী

প্রতীকী ছবি

একবার বাথরুমে ঢুকলে অন্তত ৪৫ মিনিট কাটিয়ে দেন। ‘এই আসছি’ বলে আর ফিরতেই চান না স্বামী। প্রতিদিন এই কাণ্ড চলে চার থেকে পাঁচবার। সব মিলিয়ে চার ঘণ্টা বাথরুমে কাটে তার। সেটাও মেনে নিচ্ছিলেন স্ত্রী। শেষ পর্যন্ত ধৈর্যের বাঁধ ভাঙল রেস্তরাঁয় খেতে গিয়ে।

স্বামীর বহু দিনের অভ্যাসে বিরক্ত স্ত্রী। বাথরুমে একবার ঢুকলে আর বাইরে আসতে চান না তিনি। কী করেন ৪৫ মিনিট ধরে? নাম প্রকাশ না করে নেটমাধ্যমে এর সমাধান চেয়েছেন ইংল্যান্ডের এক নারী। জানিয়েছেন, এক প্রকার মেনেই নিয়েছিলেন বিষয়টি। কিন্তু একই ঘটনা যখন রেস্তরাঁয় গিয়ে ঘটল, তখন আর সামলাতে পারলেন না নিজেকে।

রেস্তরাঁয় খাবার আসার পরেই স্বামী বলেন, তিনি বাথরুমে যাবেন। স্ত্রী বললেন, সেখানে এমন কাণ্ড না ঘটাতে। কিন্তু তারপরেও যখন ২০ মিনিট কেটে যায়, তখন ওই নারী তার স্বামীকে ফোন করেন। স্বামী বলেন, এখনই আসছেন। কিন্তু তারপর আরও ২০ মিনিট কেটে যায়। তখন আর ধৈর্য ধরে রাখতে পারেননি ওই নারী। তিনি একাই খাবার খেয়ে ফেলেন। এরপর নিজের খাবারের দাম দিয়ে বাড়ি ফিরে যান।

স্বামীর এমন অভ্যাসে জেরবার ওই নারী নেটমাধ্যমে সুরাহা চেয়েছেন। তার প্রশ্নের নানা রকম উত্তর এসেছে। একজন বলেছেন, চারটি সম্ভাবনা রয়েছে। ১. তিনি হয়তো ফোনে ভিডিও গেম খেলেন, ২. হয়তো পর্নগ্রাফি দেখেন বা হস্তমৈথুন করেন ৩. হয়তো সত্যিই তার কোনও শারীরিক সমস্যা আছে, ৪. অথবা একেবারেই অন্য কিছু।

তবে সমস্যাটির সহজ সমাধান দিয়েছে অন্য একজন। তার বক্তব্য, তাকে বাথরুমে ফোন নিয়ে যেতে দেবেন না। যদি দেখা যায়, তারপরও উনি এমন পরিমাণে সময় কাটাচ্ছেন, তাহলে বুঝতে হবে, তার বড় কোনও সমস্যা আছে। সেটা হয়তো উনি বলতে পারছেন না।

ওই নারী এরপর অবশ্য জানাননি, তিনি তার স্বামীর ঘণ্টার পর ঘণ্টা বাথরুমে কাটানোর কারণ খুঁজে পেয়েছেন কি না। কিন্তু তার আগেই নেটমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এই অদ্ভুত সমস্যা। সূত্র: ডেইলি মিরর

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এই বিভাগের আরও খবর