শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৫ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ অক্টোবর, ২০১৫ ০২:৫৫

বিমান টিকিটে ছাড়ের ঘোষণা দিয়ে কোটি টাকা আত্মসাৎ!

নিজস্ব প্রতিবেদক

মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটের টিকিটে ছাড়ের অফার দিয়ে কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাজধানীর আই ট্রাভেলস লিমিটেড নামে এ প্রতিষ্ঠানটি অস্ট্রেলিয়া প্রবাসীদের ওই এয়ারলাইন্সে প্রায় ৪০০ ডলার কম দামে টিকিট দেওয়ার ঘোষণা দেয়। ছাড়ের সুযোগে অন্তত দেড় হাজার অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী টাকা দিয়ে টিকিট পাননি। এভাবে প্রতারণার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটি হাতিয়ে নিয়েছে কয়েক কোটি টাকা। পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানটি ক্রেতাদের টাকাও ফেরত দেয়নি। প্রতারণার শিকার কয়েকজন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাংলাদেশে ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। জানা গেছে, বাংলাদেশে আই ট্রাভেলসের এমডি খালেদ আবদুল্লাহ বিন হক সিডনিতে বসবাসরত শামিম হায়দার নামে এক ব্যক্তিকে তার প্রতিষ্ঠানের কান্ট্রি ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে টিকিটে অফারের বিষয়টি জানান। পরবর্তীতে তিনি টিকিট বুকিং দেওয়া শুরু করেন। কিন্তু ভ্রমণের আগ মুহূর্তে টিকিট দিতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রবাসীরা শামিম হায়দারের ওপর চড়াও হন। প্রবাসীরা সিডনি পুলিশের কাছেও অভিযোগ করেন। পরবর্তীতে পুলিশি তদন্তে দেখা যায় টিকিট বুকিংয়ের সব অর্থ বাংলাদেশের আই ট্রাভেলসের এমডি খালেদ আবদুল্লাহ গ্রহণ করেছেন। মূলত তিনি শামিম হায়দারসহ টিকিট ক্রেতা প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। এ অবস্থায় খালেদ আবদুল্লাহ টিকিটের অর্থ ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু ভুক্তভোগীরা এখন পর্যন্ত টিকিটের অর্থ ফেরত পাননি। শামিম হায়দার জানান, সম্প্রতি তিনি বাংলাদেশে আসেন। তিনি বলেন, এ বিষয় নিয়ে খালেদ আবদুল্লাহর সঙ্গে দেখা করেছি। কিন্তু তিনি অর্থ ফেরতের প্রতিশ্রুতি দিলেও তা না দিয়ে প্রতারণা করছেন। বর্তমানে প্রবাসীরা আমাকে টাকার জন্য চাপ দিচ্ছেন। পল­বী থানার এসআই রোকনুজ্জামান জানান, আই ট্রাভেলসের এমডি খালেদ আবদুল্লাহ বিন হকের বিরুদ্ধে অভিযোগটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য