শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪০

গ্রেফতার আরও ২৪ জন

মালার বাসায় বসত ছিনতাইকারীদের ইয়াবা পার্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার হয়েছে আরও ২৪ ছিনতাইকারী। তাদের মধ্যে কোহিনূর বেগম ওরফে মালা নামে এক আশ্রয়দাতাও রয়েছে। যার বাসায় বসত ছিনতাইকারীদের ইয়াবা পার্টি। পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানীতে ডিশ ব্যবসায়ী হামিদুল নিহত হওয়ার পর বেশ কয়েকজন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এরপর তদন্তে বেরিয়ে আসে এক দম্পতির নাম। যারা ঢাকা শহরের বেশ কিছু ছিনতাইকারী দলের আশ্রয়দাতা। ছিনতাইকারীদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা ও তাদের ছিনিয়ে নেওয়া পণ্য বিক্রি করে এরা। পাশাপাশি কেউ গ্রেফতার হলে জামিনের জন্য উকিল ধরার কাজটিও বেশ অনেক বছর ধরে করে আসছিল। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে কোহিনূর বেগম ওরফে মালা নামে ছিনতাইকারীদের সেই আশ্রয়দাতাসহ ২৪ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গতকাল দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে যুগ্ম কমিশনার (ডিবি) মাহবুব আলম জানান, মালাকে গ্রেফতার করা হলেও তার স্বামীকে গ্রেফতার করা যায়নি। তবে তাকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। তিনি জানান, মালা মুগদা এলাকায় একটি বাসা ভাড়া করে থাকতেন। তিনি রাজধানীর ডাকাত দলের সরদার। মালার বাসায় বিভিন্ন ডাকাত ও ছিনতাইকারী ছিনতাই শেষে আশ্রয় নিত। তার বাসায়ই ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের বিভিন্ন মালামাল ভাগ-বাটোয়ারা হতো। এমনকি কোনো ডাকাত কিংবা ছিনতাইকারী গ্রেফতার হলে এই মালাই আদালত থেকে তাকে ছাড়িয়ে আনতে টাকা-পয়সা খরচ করে তদবির করেছে। মালার নামে একাধিক ছিনতাইয়ের মামলাও রয়েছে। এমনকি শাহবাগে ডাকাতির পর হত্যার ঘটনাতেও মালার নাম উঠে আসে। মালা ও তার স্বামী দীর্ঘদিন ধরে ডাকাত দলের পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছিল। মুগদায় অভিযান চালিয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে মালাসহ ৯ জনকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশের রমনা বিভাগ। গ্রেফতার অন্যরা হলেন রাসেল মাহমুদ, মাসুদ মিয়া, শামীম, আমিনুল ইসলাম হৃদয়, পারভেজ, শহিদুল, বাবু ওরফে বেড বাবু, ও জয় মিয়া। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি চাপাতি ও দুটি ছোরা জব্দ করা হয়।

মাহবুব আলম আরও জানান, পৃথক অভিযানে হাজারীবাগ থেকে অজ্ঞান পার্টির ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা হলেন মোজাম্মেল হোসেন ওরফে মুজা, কালু, ইলিয়াস, আনোয়ার হোসেন, সুমন হোসেন, ইকবাল হোসেন, মিটন, রবি আউয়াল ও হেলাল। এ সময় তাদের কাছ থেকে অজ্ঞান করার ৫টি  স্প্রে, ৪টি মোস্তফা গুল, ৪টি জাম-বাগ মলম, ৪টি পাগলা মলম ও জিপারে ৩ প্যাকেটে মরিচের গুঁড়া জব্দ করা হয়েছে। তাদেরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, এরা ঢাকার বিভিন্ন মার্কেট-শপিংমল, বাসস্ট্যান্ড, সদরঘাট ও রেলস্টেশনে ব্যক্তিদের টার্গেট করত। সুযোগ বুঝে কৌশলে তাদের চোখেমুখে মলম বা স্প্রে  দিয়ে অজ্ঞান করে সঙ্গে থাকা সবকিছু নিয়ে নিত। এ ছাড়া কারওয়ান বাজারে টিসিবি কার্যালয়ের সামনে থেকে মোবাইল চোরাকারবারি দলের ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশের মতিঝিল বিভাগের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ টিম। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩০টি চোরাই মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে আছে রবিন ওরফে নবী, সাঈদ, রুনা ওরফে রোজিনা, মনোয়ার, রুবেল মিয়া ওরফে হাসান ও আল আমীন।


আপনার মন্তব্য