শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৬ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ মার্চ, ২০২১ ২৩:৪৯

জঙ্গিবাদ থেকে মুক্ত থাকতে ইসলামকে জানতে হবে

-আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, জঙ্গিবাদ ইসলামের শত্রু। তাদের হাতেই মুসলমানদের সব থেকে বেশি রক্ত ঝরেছে। এ জন্য জঙ্গিবাদ থেকে দূরে থাকতে ইসলামকে জানতে হবে। সচেতনভাবে ধর্ম চর্চার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের ধর্মীয় রীতি-নীতি ও অনুশাসন মেনে চলার পরামর্শ দেন তিনি। রাজারবাগ পুলিশ লাইনস অডিটোরিয়ামে গতকাল দুপুরে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস ফাউন্ডেশনের আয়োজনে মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তিপ্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন আইজিপি। বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের প্রধান ডিআইজি মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ১১৩ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। আইজিপি বলেন, জঙ্গিবাদের হাতে বহু মুসলিম খুন হয়েছে, রক্তাক্ত হয়েছে। তারা সব থেকে বেশি ইসলামের ক্ষতি করেছে। এ কারণে সচেতনভাবেই ধর্মীয় মূল্যবোধের শিক্ষা নিতে হবে। ইসলামকে জানতে অনেক বই রয়েছে সেগুলো পড়তে হবে। তবে ফেসবুক বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে দুই লাইন নিয়ে নয়; ইংরেজিসহ বিভিন্ন ভাষায় ধর্মীয় গ্রন্থ পাওয়া যায়, সেগুলো পড়তে হবে।

ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, বাঙালি জাতির ইতিহাসে মার্চ একটি ঘটনাবহুল মাস। এ মাসেই বাঙালি জাতির মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মগ্রহণ করেন।

এ মাসেই হাজার বছরের শৃঙ্খল ভেঙে স্বাধীনতাযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাংলার মানুষ। তোমরা (শিক্ষার্থীরা) ভাগ্যবান যে, স্বাধীন বাংলাদেশে জন্মগ্রহণ করেছ। চার-পাঁচ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে দারিদ্র্য বিদায় নেবে। দারিদ্র্য যে কত ভয়ানক তা যারা না দেখেছে, তারা বিশ্বাস করবে না। অর্ধাহার-অনাহারের জীবন কী-তা না দেখলে বিশ্বাস হবে না। এক সময় এই বস্তিবাসী ডাস্টবিন থেকে খাবার কুড়িয়ে খেত। এগুলো এখন নেই। গত ১২ বছরে বাংলাদেশে যুগান্তকারী পরিবর্তন হয়েছে। এ সময়ে শিক্ষায় বেশি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে পড়ানো হচ্ছে। বই ফ্রি পাচ্ছে। আমরা বই পেতাম তিন চার মাস পর। বর্তমানে সেই পরিস্থিতি নেই। এখন আমাদের শিক্ষার্থীরা বিদেশে পড়তে গেলেও সেখানে থাকছে না। বাংলাদেশ এখন অমিত সম্ভাবনার দেশ বলেই পড়াশোনা শেষে মেধাবীরা দেশে ফিরে আসছে। আমাদের যৌথ পরিবারগুলো ভেঙে গেছে। যৌথ পরিবারে মুরব্বিদের কাছ থেকে অনেক কাউন্সিলিং পেত শিশুরা। এটা এখন হয় না। আমি আমার সন্তানদের দিয়ে বুঝি-তারা কত একাকিত্ব বোধ করে।

শিক্ষার্থীদের আইজিপি বলেন, তুমি এই জাতির গর্ব হও। মাদক থেকে দূরে থাক। তোমার ভিতরে আত্মমর্যাদা থাকতে হবে। বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে অহংকার থাকতে হবে। দেশের অতীত ইতিহাসকে শ্রদ্ধা জানাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আগামী ১৭ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত ১০ দিন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে পাঁচটি দেশের প্রধানরা আসবেন। ওই দিনগুলোতে বিশেষ কাজ না থাকলে ডিএমপির পক্ষ থেকে বের না হওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে। যারা আসবেন তারা আমাদের মেহমান। তাদের আমরা সম্মানের সঙ্গে স্বাগত জানাব। আগামী ১০ দিন সবাই সহযোগিতা করবেন। এ সময় সভা-সমাবেশ না করাসহ প্রয়োজন ছাড়া নগরবাসীকে চলাচল না করার অনুরোধ জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য