শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২১ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ মার্চ, ২০২১ ০১:১৭

সুনামগঞ্জের ঘটনায় ঢাবি শিক্ষক সমিতির নিন্দা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

সুনামগঞ্জের শাল্লায় নোয়াগাঁও গ্রামের সংখ্যালঘুদের বাড়ি-ঘরে হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। গতকাল সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. নিজামুল হক ভূইয়া স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এই নিন্দা জানানো হয়। এছাড়া সম্প্রতি একটি গণমাধ্যমের আলোচনায় হেফাজত নেতা ফয়জুল্লাহর ‘জাতীয় সংগীত নতুনভাবে রচনা’র বিষয়ে দেওয়া বক্তব্যকে ধৃষ্টতা অ্যাখ্যা দিয়ে এর শাস্তির দাবিও জানিয়েছে শিক্ষক সমিতি।

 

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায় যে, হেফাজতে ইসলামের উগ্রবাদী নেতা মামুনুল হকের অনুসারীরা হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের সঙ্গে জড়িত। ১৫ মার্চ সুনামগঞ্জের দিরাই এলাকায় অনুষ্ঠিত হেফাজতের সভায় মামুনুলের উস্কানিমূলক বক্তব্য তার নেতা-কর্মীদের আক্রমণে উদ্বুদ্ধ করেছে। সে রাতেই মামুনুল হকের অনুসারীরা জুমন দাস ও তার পরিবারের উপর হামলার মহড়া দেয়। স্মরণযোগ্য, রামু ও নাসিরনগরে সাম্প্রদায়িক হামলার আগেও এ ধরনের ধর্মীয় উস্কানির অভিযোগ আনা হয়েছিল।

শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ বলেন, জাতি যখন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে, সেই সময়ে বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানদের উপস্থিতিতে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাট করে মামুনুলের অনুসারীরা বাংলাদেশকে বিশ্বের সামনে একটি সাম্প্রদায়িক ও প্রতিক্রিয়াশীল রাষ্ট্র হিসেবে উপস্থাপনের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে; যা রাষ্ট্রবিরোধী অপরাধ। শিক্ষক সমিতি এ হামলার শিকার পরিবারসমূহের ক্ষতিপূরণসহ নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রদ্রোহী সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকারের কাছে জোর দাবি জানায়।