শিরোনাম
রবিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

এএসপি নিয়োগেও পরিবর্তন আসছে

--------- আইজিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, সম্প্রতি নতুন পদ্ধতিতে সম্পন্ন হওয়া কনস্টেবল নিয়োগে জব মার্কেট থেকে বেস্ট অব দি বেস্ট প্রার্থী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদে নিয়োগেও বড় পরিবর্তন আসছে। গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে পুলিশ সদর দফতর আয়োজিত এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) মো. কামরুজ্জামান স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এসব কথা জানানো হয়েছে। আইজিপি বলেন, পরিবর্তিত নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পুলিশে সাব ইন্সপেক্টর, সার্জেন্ট ও কনস্টেবল নিয়োগের ফলে জব মার্কেট থেকে বেস্ট অব দি বেস্ট লোক আসবে। বাংলাদেশ পুলিশ এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের যৌথ আয়োজনে পরিবর্তিত পদ্ধতিতে বাংলাদেশ পুলিশের ক্যাডেট সাব-ইন্সপেক্টর পদে নিয়োগ কার্যক্রম সম্পর্কে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. খলিলুর রহমান, টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. সাহাব উদ্দিন। আইজিপি বলেন, আমরা মেধার পাশাপাশি শারীরিকভাবে অধিকতর যোগ্য প্রার্থীদের বাছাই করছি। নতুন পদ্ধতিতে কনস্টেবল নিয়োগ ছিল একটি সাহসী পদক্ষেপ। সফলভাবে এই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে আইজিপি বলেন, আপনারা বাংলাদেশ পুলিশে এক নবযাত্রার সূচনা করেছেন, সৃষ্টি করেছেন ইতিহাস। সময়ের প্রয়োজনে সংগঠনে পরিবর্তন আনতে হয়। ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পরিণত হবে ইনশা আল্লাহ।

 বাংলাদেশ পুলিশকে উন্নত দেশের উপযোগী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কনস্টেবল, সাব-ইন্সপেক্টর ও সার্জেন্ট নিয়োগ প্রক্রিয়া সংশোধনের মধ্য দিয়ে এ পরিবর্তনের সূচনা করা হয়েছে। সহকারী পুলিশ সুপার পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আনা হবে। প্রসঙ্গত, নতুন পদ্ধতিতে এএসপি পদে অধিকতর যোগ্য প্রার্থী পেতে একটি বিশেষ বিসিএসের প্রস্তাব পাঠিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। অনুষ্ঠানে আইজিপি বাংলাদেশ পুলিশের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করার জন্য টেলিটক কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ভবিষ্যতেও টেলিটকের সঙ্গে কাজ করবে পুলিশ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশের অতিরিক্ত আইজি মো. মাজহারুল ইসলাম। সাব ইন্সপেক্টর নিয়োগ পদ্ধতির সার্বিক দিক তুলে ধরে বক্তব্য দেন এআইজি (আরএন্ডসিপি-১) মো. মাহফুজুর রহমান আল-মামুন। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত আইজি, ঢাকায় পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের প্রধান, ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা এবং টেলিটকের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সহকারী পুলিশ সুপার থেকে অতিরিক্ত ডিআইজি পদমর্যাদার কর্মকর্তারা অংশ নেন। সব রেঞ্জ ডিআইজি এবং জেলার এসপিরা ভার্চুয়ালি কর্মশালায় যুক্ত ছিলেন।

 

 

সর্বশেষ খবর