শিরোনাম
প্রকাশ : ৩১ অক্টোবর, ২০২০ ১১:২৩
আপডেট : ৩১ অক্টোবর, ২০২০ ১১:২৪

পকেটের নোট ভালো রাখুন

রিয়াজুল হক

পকেটের নোট ভালো রাখুন
রিয়াজুল হক

ভুল ব্যবহার কিংবা ছেলেমানুষির কারণে, বাজারে প্রচলিত নোটসমূহ অনেক সময় অপেক্ষাকৃত কম সময়ে অপ্রচলনযোগ্য হয়ে যায়। কয়েকটি উদাহরণ দিলে বিষয়টি আরও পরিষ্কার হবে।

১. আমরা অনেকেই টাকার প্যাকেটে স্ট্যাপলিং করি। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী, ১০০০ টাকা মূল্যমানের নোট ব্যতীত যে কোন মূল্যমানের নোটের প্যাকেট স্ট্যাপলিং করা যাবে না।

২. অনেকেই আবার সাদা কাগজ মনে করে নোটের উপর ইচ্ছামত নিজের স্বাক্ষর, সিল দিয়ে থাকে। নোটের উপর বিভিন্ন মার্কা, ছবি আঁকায়।

৩. অনেকেই নোটের উপর রং লাগিয়ে পুরো নোট বিকৃত করে ফেলে। 

৪. কেউ আবার নোট মুড়িয়ে মুড়িয়ে কাছে রাখে। কি যে অদ্ভুত কায়দা!

৫. কেউ টাকায় চিঠি লেখে, ঠিকানা লেখে। আরও মজার বিষয় হচ্ছে, কেউ আবার ক+খ কিংবা N+H লেখে ইত্যাদি। কি যে শান্তি পায়! আরও অদ্ভুত চিন্তাশক্তির প্রভাব খাটায় নোটের উপর।

এসব কারণে নোট দীর্ঘদিন ব্যবহার উপযোগী থাকে না। অনেকেই বাজারে টাকা চালাতে পারে না। এই দোকান, সেই দোকান চেষ্টা করে। নোটের উপর ব্যক্তি পর্যায়ের বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা চালানোর দরকার নেই। যথার্থভাবে ব্যবহার করে পকেটের নোট ভালো রাখুন।

লেখক: যুগ্ম পরিচালক, বাংলাদেশ ব্যাংক

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য