২৯ নভেম্বর, ২০২৩ ১৫:২২

নতুন ধানের গন্ধে মাতোয়ারা

আবদুর রহমান টুলু, বগুড়া ও বাবুল আখতার রানা, নওগাঁ

নতুন ধানের গন্ধে মাতোয়ারা

বগুড়া, নওগাঁসহ বিভিন্ন স্থানে আমন চাষিরা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। নতুন ধানের গন্ধে ভরে উঠেছে উঠান। নতুন ধান কাটা আর সেই ধানে প্রথম খাবার খাওয়া অন্যরকম আনন্দ। নতুন চালের তৈরি পায়েশ-পোলাও, পিঠা-পুলিসহ রকমারি খাদ্য পাড়া-প্রতিবেশী, আত্মীয়-স্বজন সবাইকে নিমন্ত্রণ করে খাওয়ানাটাও আনন্দের। পাশাপাশি পালন করা হয় সামাজিক নানা আচার-অনুষ্ঠান। কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় এ বছর আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। বগুড়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্র জানায়, জেলায় চলতি মৌসুমে ১ লাখ ৮৩ হাজার ৫১০ হেক্টর জমিতে আমন আবাদ হয়েছে। যা থেকে ৯ লাখ টন ধান পাওয়ার আশা করা হচ্ছে। ধানকাটার উৎসব চলছে। শ্রমিকরা দলবেঁধে ধান কেটে মাড়াই করছেন। শহরের চারমাথা, তিনমাথা, মাটিডালী, মহাস্থান এবং রেলওয়ে স্টেশনে ধান কাটার শ্রমিকদের দেখা গেছে। তারা উত্তরের বিভিন্ন জেলা থেকে এসেছেন। গাবতলীর চাষি  আমিনুর রহমান জানান, সারের কোনো সমস্যা ছিল না। চাষি আল মামুন জানান, এবার শ্রমিকের মূল্য বেশি। এক বিঘা ধান কাটতে শ্রমিকের জন্য খরচ হচ্ছে প্রায় ৬ হাজার টাকা। নন্দীগ্রামের চাষি আইয়ুব হোসেন জানান, বাজারে ধানের মণ ১১০০-১২০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচে বিঘাপ্রতি ১৭ থেকে ২০ মণ ধান পাওয়া যায়। বগুড়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক কৃষিবিদ মতলুবর রহমান জানান, এ বছর লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৩৫ হেক্টর বেশি জমিতে আমন চাষ হয়। এ থেকে ৬ লাখ মেট্রিক টন চাল উৎপাদন ধরা হলেও ফলন বেড়ে যাওয়ার আশা করা হচ্ছে। এদিকে নওগাঁয় চলতি মৌসুমে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে আমন ধান আবাদ হয়েছে। যা থেকে ৯ লাখ ৭ হাজার ৫২৫ মেট্রিক টন ধান উৎপাদনের আশা কৃষি বিভাগের। নওগাঁ সদরের চাষি ইব্রাহিম হোসেন বলেন, এ বছর ধানের ফলন ভালো হয়েছে। প্রতি বিঘায় ধান উৎপাদনে খরচ পড়েছে ১০-১২ হাজার টাকা। ধান কাটার পর অন্য ফসল উৎপাদনে বাড়তি তেমন খরচ হয় না। আবহাওয়া ভালো থাকায় এখন সুন্দরভাবে ফসল ঘরে তোলা যাচ্ছে। কৃষক এনামুল হক বলেন, আপৎকালীন ফসল হিসেবে আমন ধান আবাদ করা হয়। ধান কেটে আলু বা সরিষা চাষ করা হবে। আমন ধান বিক্রি করে সেই টাকা দিয়ে এসব ফসল আবাদ করা হবে। এতে পকেট থেকে বাড়তি টাকা খরচ হবে না। নওগাঁ সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মনিরুল ইসলাম বলেন, ধানে পোকার আক্রমণ হলেও উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ব্যাঘাত হবে না।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর