২ মার্চ, ২০২৪ ০৭:১৯

স্বামীকে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করলেন স্ত্রী

পটুয়াখালী প্রতিনিধি

স্বামীকে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করলেন স্ত্রী

ফাইল ছবি

পটুয়াখালীতে স্বামীকে ধারালো বটি দিয়ে কুপিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর থানায় হাজির হলেন স্ত্রী। শুক্রবার (০১ মার্চ) দিবাগত রাত ৮টার দিকে স্বামীর মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পরে থানায় গিয়ে স্ত্রী জিনিয়া ইসলাম (১৮) আত্মসমর্পন করেন। 

এর আগে, বিকেল ৫টার দিকে পটুয়াখালী পৌর সভার কলাতলা আকন বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মো. রাকিব ইসলাম (২০) শহরের কলাতলা এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে।

পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহমদ মঈনুল হাসান বলেন, গত কোরবানির ঈদের তিন দিন আগে শহরের কলাতলা আকন বাড়ির ভাড়াটিয়া নজরুল ইসলামের ছেলে মো. রাকিব ইসলাম (২০) এর সাথে সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ইউনিয়নের জুয়েল আকনের মেয়ে জিনিয়া ইসলাম (১৮) এর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে রাকিব বেকার ছিল। পরে পারিবারিক কলহের জের ধরে প্রায়ই রাকিব স্ত্রী জিনিয়াকে মারধর করত। সম্প্রতি স্ত্রী পরকিয়া করছে এমন সন্দেহে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-ঝাটি লেগেই থাকতো। এক পর্যায়ে জিনিয়া তার বাবার বাড়ি চলে যায়। 

তিনি আরও জানান, শুক্রবার দুপুরে রাকিব তার স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে নিয়ে আসেন। আসার পথে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। বিকেলে রাকিব ঘুমাতে গেলে ধারালো বটি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুত্বর আহত করার পর গলায় ওড়না পেচিয়ে শ্বাসরোধ করে রাকিবের মৃত্যু নিশ্চিত করেন তার স্ত্রী জিনিয়া। পরে রাত ৮টায় স্ত্রী জিনিয়া পটুয়াখালী সদর থানায় উপস্থিত হলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সাথে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা তা অধিকতর তদন্তে বেরিয়ে আসবে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

সর্বশেষ খবর