১৩ মার্চ, ২০২৪ ১৪:২১

কৃষকের ১৫ বিঘা জমির ফসল নষ্ট করার অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

কৃষকের ১৫ বিঘা জমির ফসল নষ্ট করার অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়ায় রাতের আধারে তৌহিদুল ইসলাম নামের এক কৃষকের ১৫ বিঘা জমির ফসল কেটে নষ্ট করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই কৃষক রুহিয়া থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযুক্ত খালেক ইসলাম (৪৫) রুহিয়া ঘনিমহেষপুর গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার রুহিয়া ঘনিমহেশপুর গ্রামের কৃষক তৌহিদুল ইসলাম ৯০ বিঘা জমি বর্গা নিয়ে আলু, পিয়াজ, মরিচ ও মিষ্টি কুমড়া চাষাবাদ করেন। এরপর থেকেই স্থানীয় খালেক ইসলামসহ আরো বেশ কয়েকজন তৌহিদুল ইসলামের কাছে চাঁদা দাবি করেন। গত ৯ মার্চ সন্ধ্যায় নিজের ফসল দেখতে যান কৃষক তৌহিদুল ইসলাম। এসময় তিনি দেখেন তার ১৩ বিঘা জমির মিষ্টি কুমড়া গাছ, ৩৫ শতক পিয়াজ ক্ষেত ও ৪৫ শতক জমির আলু তুলে নিয়ে নষ্ট করে দেয়া হয়েছে।

কৃষক তৌহিদুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, খালেক দীর্ঘদিন ধরেই আমার কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। আমি চাঁদা না দিলে আমার আবাদীয় জমির আলু, পিয়াজ, মরিচ ও মিষ্টি কুমড়া নষ্ট করে দিবে বলে হুমকি দেয়। আমার জমির প্রায় সাড়ে ৭ লাখ টাকার ক্ষতি করেছে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

এদিকে অভিযুক্ত খালেক ইসলামের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

রুহিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ গুলফামুল ইসলাম মন্ডল বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

সর্বশেষ খবর