শিরোনাম
প্রকাশ : ২ মে, ২০২১ ১৭:২৮
প্রিন্ট করুন printer

চমেক হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চমেক হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি সাময়িকভাবে প্রত্যাহার করা হয়েছে। রবিবার (২ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় চমেক হাসপাতাল পরিচালকের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

এর মাধ্যমে চমেক হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসকরা চারদিন পর কাজে ফিরেন। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন চমেকের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আখতার, চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এসএম হুমায়ুন কবির, চমেক হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও পুলিশ কর্মকর্তারা।  

চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এসএম হুমায়ুন কবির বলেন, ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে তাদের দাবির বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এর প্রেক্ষিতে তারা কাজে ফিরে গেছে। তাদের অন্যতম দাবি ছিল বহিরাগতদের গ্রেফতার। এ জন্য তিনদিনের সময় দিয়েছেন। তবে ইতোমধ্যে যেহেতু ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে মামলা হয়েছে, তাই আশা করছি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনবে।    

ইন্টার্ন ডক্টর অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য সচিব ডা. তাজওয়ার রহমান বলেন, সাময়িক সময়ের জন্য কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে তিন দিনের মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা না হলে পুনরায় কর্মবিরতি দেয়া হবে।  

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার রাতে চমেক ছাত্রলীগের দু'টি পক্ষের কথা কাটাকাটির জের ধরে দুই গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে চমেকের ৫৭ ব্যাচের দুইজন ইন্টার্ন চিকিৎসকসহ সাতজন আহত হন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

এ ঘটনার জের ধরে গত বুধবার থেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা হাসপাতলে কর্মবিরতি শুরু করেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গত বুধবার চমেক হাসপাতালের পরিচালকের সম্মেলন কক্ষে চমেক হাসপাতাল, পুলিশ এবং বিদ্যমান দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক হয়। বৈঠক ফলপ্রসূ না হওয়ায় কর্মবিরতি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। অন্যদিকে, ঘটনা তদন্তে মেডিকেলের দুইজন উপ-পরিচালক ও মেডিসিন বিভাগের একজন অধ্যাপকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

 
বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর