Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ মার্চ, ২০১৯ ২৩:১৪

খুলনায় বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত

গৃহকর্তাকে কুপিয়ে ১১ লাখ টাকা ডাকাতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনায় বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত

খুলনার দৌলতপুরে শুক্রবার রাত ১১টার দিকে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মিরাজুল ইসলাম মিরাজ (২৭) নামের এক ডাকাত নিহত হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক ডাকাতি ও মাদক মামলা রয়েছে। মিরাজ ফুলবাড়িগেট জাব্দিপুর এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে। দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মোস্তাক আহমেদ জানান, রাতে সেনপাড়া এলাকা থেকে ১০ মামলার আসামি মিরাজকে আটক করা হয়। এরপর চুরি করা মালামাল উদ্ধারের জন্য রাতে তাকে নিয়ে কৃষি কলেজের পেছনে বড় মাঠ এলাকায় গেলে তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। তখন আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গুলি বিনিময়ের একপর্যায়ে মিরাজ গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, বন্দুকের ২ রাউন্ড গুলি, ২টি রামদা, একটি ছুরি, একটি স্ক্রু ড্রাইভার, চুরি করা বিভিন্ন মালামাল ও ৫০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এদিকে খুলনার ডুমুরিয়ায় দোতলা বাড়ির গ্রিল কেটে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গৃহকর্তা নারায়ণ রাহাকে (৭১) গুরুতর জখম করেছে। পরে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকাসহ ১১ লাখ টাকার মালামাল লুট করে। গতকাল ভোররাতে উপজেলার চাকুন্দিয়া গ্রামে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। মালামাল লুট করে পালানোর সময় গ্রামবাসী তিন ডাকাতকে আটক করে। এর মধ্যে দুজনকে গণপিটুনি দেওয়া হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের খুলনা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। ডুমুরিয়ায় ডাকাতির ঘটনায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, শনিবার ভোররাতে ৫/৬ জনের ডাকাতদল চাকুন্দিয়া গ্রামে দোতলার জানালার গ্রিল কেটে ঘরে ঢোকে। তারা পরিবারের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে ফেলে। পরে মালামাল নিয়ে পালানোর সময় স্থানীয়রা বাধা দিয়ে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় আটক ডাকাতদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই পাতার আরো খবর