Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:৪৪

ছয় কারণে পিছিয়েছে দক্ষিণাঞ্চল

ব্যবসা-বাণিজ্যে প্রতিকূলতা দূর করতে সেমিনার

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

ছয় কারণে পিছিয়েছে দক্ষিণাঞ্চল

দীর্ঘদিনেও খুলনা বিমানবন্দর না হওয়া, মোংলায় কনটেইনারবাহী জাহাজ সংকট, বন্দরের আধুনিকায়ন, শিল্পায়নের জন্য পাইপ লাইনে গ্যাস, অপ্রতুল যোগাযোগ ব্যবস্থা ও পর্যটন খাতে প্রতিবন্ধকতায় ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েছে খুলনাসহ দক্ষিণাঞ্চল। এ অবস্থার উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা ও মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীরা।

গতকাল খুলনা চেম্বার অব কমার্সের সম্মেলন কক্ষে আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা উপকমিটির উদ্যোগে ‘উন্নয়ন রোডম্যাপ’ শীর্ষক বিভাগীয় সেমিনারে এসব বিষয়ে আলোচনা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর অর্থনীতিবিষয়ক উপদেষ্টা এবং আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা উপকমিটির চেয়ারম্যান ড. মসিউর রহমান। সেমিনারে খুলনা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি কাজী আমিনুল হক বলেন, খুলনার উন্নয়নের স্বার্থে খানজাহান আলী বিমানবন্দরের কাজ দ্রুত শেষ করতে হবে। একই সঙ্গে খুলনায় শিল্পপ্রতিষ্ঠানে গ্যাসলাইন চালু করা, পণ্য             পরিবহনের জন্য খুলনা-ঢাকা বিরতিহীন ট্রেন সার্ভিস এবং পর্যটন খাতের বিকাশে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করতে হবে। এ সময় ব্যবসায়ীরা চিংড়ির উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে ‘ভেনামি’ জাতের চিংড়ি চাষের অনুমতি, মোংলা বন্দরে বাধ্যতামূলক কনটেইনারবাহী জাহাজ আগমন, ভোমরা বন্দরের অবকাঠামো উন্নয়ন, অর্থনৈতিক অঞ্চল, পাটকলের আধুনিকায়ন ও কর্মসংস্থানের জন্য নতুন নতুন শিল্পপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের দাবি জানান।

আওয়ামী লীগের অর্থ ও পরিকল্পনা উপকমিটির সদস্যসচিব বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, মোংলা বন্দরের নাব্যতা বৃদ্ধির জন্য একাধিক প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে। এ ছাড়া বিমানবন্দর, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরির কাজ চলমান রয়েছে। পদ্মা সেতু হলে এ অঞ্চলে পর্যটনের দ্বার উন্মুক্ত হবে। তিনি বলেন, ‘রপ্তানি খাতকে আমরা আরও সম্প্রসারিত করতে চাই। এ কারণে চিংড়ির উৎপাদন বৃদ্ধিতে ভেনামি জাতের চিংড়ি চাষ করা যেতে পারে। তবে এ ক্ষেত্রে কমিটি গঠন করে পরিবেশগত ক্ষতির দিকটি যাচাই করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর অর্থনীতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান বলেন, উন্নয়নের দিক থেকে খুলনা বিভাগ পিছিয়ে আছে। এখানে ব্যবসা-বাণিজের ক্ষেত্রে কী ধরনের সুবিধা ও প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তা চিহ্নিত করতে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দুই সংসদ সদস্য আবদুস সালাম মুর্শেদী ও মো. আক্তারুজ্জামান বাবু, সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংকের চেয়ারম্যান এস এম আমজাদ হোসেন, ঝিনাইদহ চেম্বারের সাবেক সভাপতি মীর নাসির উদ্দিন, সাতক্ষীরা চেম্বারের সভাপতি নাসিম ফারুক খান মিঠু এবং বাগেরহাট চেম্বারের সভাপতি শেখ লিয়াকত হোসেন। ব্যবসায়ীরা খুলনার যানজট কমাতে রূপসা ট্রাফিক মোড় থেকে রূপসা সেতু পর্যন্ত চার লেনের রাস্তার কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন ও খুলনা চেম্বার অব কমার্সের জরাজীর্ণ ভবনটি সংস্কারের জোর দাবি জানান।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর