শিরোনাম
রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা

ডায়ালাইসিস চালু হয়নি, বন্ধ ১০টি প্যাথলজি পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনা আবু নাসের হাসপাতালে ডায়ালাইসিস ইউনিটের ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট নষ্ট হওয়ায় আট দিন পরও চালু হয়নি ডায়ালাইসিস কার্যক্রম। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন কিডনি রোগীরা। এদিকে প্রয়োজনীয় উপকরণ না থাকায় বন্ধ হয়ে গেছে গুরুত্বপূর্ণ ১০টি প্যাথলজি পরীক্ষা। সময়মতো পরীক্ষার রি-এজেন্ট না কেনায় এ বিপত্তি তৈরি হয়েছে। জানা যায়, বিশেষায়িত এই হাসপাতালে ৩৬ ধরনের পরীক্ষা করা হয়। তবে গত সপ্তাহ থেকে থাইরয়েড, ডায়াবেটিকস, লিপিড প্রোফাইল, ক্যালসিয়াম, ইউরিক অ্যাসিডসহ ১০টি প্যাথলজি পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়া গত ১৮ মার্চ ডায়ালাইসিস ইউনিটে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট নষ্ট হয়ে গেলে ডায়ালাইসিস কার্যক্রমও বন্ধ হয়ে যায়। ফলে সেবা না পেয়ে বেসরকারি চিকিৎসা নিতে বাধ্য হচ্ছেন রোগীরা।

চিকিৎসকরা জানায়, হাসপাতালে প্রতিদিন গড়ে ৯০ থেকে ১০০ কিডনি রোগীর ডায়ালাইসিস করা হয়। এ ছাড়া চিকিৎসা নিতে আসা ৮০ শতাংশ রোগীর ডায়াবেটিক, ইউরিক অ্যাসিড, সিরাম ক্রিয়েটিন প্যাথলজি পরীক্ষার প্রয়োজন হয়। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ১০টি প্যাথলজি পরীক্ষা বন্ধ থাকায় ভোগান্তি বাড়ছে।

হাসপাতালের পরিচালক ড. মুন্সি রেজা সেকেন্দার জানান, ১৮ মার্চ ডায়ালাইসিস ইউনিটের ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট নষ্ট হওয়ার তথ্য ঢাকায় জানানো হয়েছে। গত সপ্তাহে টেকনেশিয়ান এসে পরীক্ষা করেছেন। কিন্তু যেসব যন্ত্রাংশ লাগবে তা এখানে পাওয়া যায় না। ঢাকা থেকে যন্ত্রাংশ এনে মেশিন ঠিক করতে একটু সময় লাগছে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর