শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ মার্চ, ২০২১ ১৪:৩৫
আপডেট : ৩ মার্চ, ২০২১ ১৫:৩১
প্রিন্ট করুন printer

গ্রাহকের টাকা পাঠানো আরও সুবিধাজনক করলো বিকাশ

অনলাইন ডেস্ক

গ্রাহকের টাকা পাঠানো আরও সুবিধাজনক করলো বিকাশ

বছর দশেক আগের কথা, কবির এর বাবা মাস শেষে বেতন নিয়ে বাড়ি ফিরতেন। লঞ্চে টাকা ছিনতাইয়ের ভয়ে পাউরুটির ভেতরে ছিদ্র করে টাকা নিতেন তিনি। পোশাক শ্রমিক শাহিনা বাড়িতে টাকা পাঠাতেন পাশের গ্রামের শরিফুলের কাছে। 

চারদিন পরে তার পরিবার সেই টাকা পেত আর শাহিনাকে দিতে হতো যাতায়াত ভাড়াও। ঠিক সময় টাকা না পেয়ে গাছ থেকে পড়ে যাওয়া নাতির চিকিৎসা করাতে পারেননি আব্দুল গণি।

টাকা পাঠানোর এমন অসংখ্য গল্পগুলো আমূল বদলে দিয়েছে মোবাইল আর্থিক সেবা বিকাশ। মোবাইলে মুহূর্তেই প্রিয়জনকে সেন্ড মানি বা টাকা পাঠানোর এই সেবা এতোটাই মানুষের আস্থা অর্জন করেছে যে টাকা পাঠানোর সর্মাথক শব্দে পরিণত হয়েছে “বিকাশ করা”।

ব্যাংকিং চ্যানেলের বাইরে থাকা বিশাল জনগোষ্ঠিকে আর্থিক অন্তর্ভুক্তিতে আনার ক্ষেত্রে সেন্ড মানি সেবা উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। প্রতিটা সেন্ড মানির সঙ্গে জড়িয়ে থাকে পরিবার ও প্রিয়জনের ভালোবাসার গল্প। এই অতীব গুরুত্বপূর্ণ জনপ্রিয় সেবাটি শুরু থেকেই এখন পর্যন্ত মোবাইল আর্থিক সেবার বহুল ব্যবহৃত সেবা হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। 

সমাজের প্রান্তিক শ্রেণির মানুষ সহ সব স্তরের মানুষের জীবনের অংশে পরিণত হওয়া সেন্ড মানি সেবাকে খরচবিহীন এবং সুবিধাজনক করতে জনমুখী একটি নতুন উদ্যোগ নিয়েছে বিকাশ।
নতুন এই উদ্যোগে এখন থেকে পাঁচটি প্রিয় বিকাশ গ্রাহক নম্বরে মাসে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত কোন খরচ ছাড়াই সেন্ড মানি করতে পারবেন সকল বিকাশ গ্রাহক।

পরিবার প্রিয়জনকে গ্রামে রেখে শহর-উপশহরগুলোতে যারা জীবিকার তাগিদে ছুটে বেড়ান তাদের আয়ের টাকা দিনশেষে পরিবারকে পাঠাতে সেন্ড মানি সেবাটি ব্যবহার করেন। পরিসংখ্যান অনুসারে শহরে বসবাসকারী এই জনগোষ্ঠীর গড় আয় ১৫ থেকে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ। এই আয়ের থেকেই নিজের চলার খরচ রেখে বাকিটা প্রিয়জনকে পাঠান। 

এমএফএস-এর লেনদেন তথ্য বিশ্লেষণ করলে আরও দেখা যায়, প্রায় ৯০ শতাংশ গ্রাহকই প্রতি মাসে তিন থেকে চারটি বিকাশ অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা পাঠান। এই তথ্য-উপাত্তকে বিবেচনায় নিয়ে বিকাশ পাঁচজন প্রিয়জনকে প্রতিমাসে সর্বমোট ২৫ হাজার টাকা পাঠানো সম্পূর্ণ ফ্রি করে দিয়েছে।

বিকাশে প্রিয় নম্বর যুক্ত করা খুবই সহজ। *২৪৭# বা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহক সহজেই তার বিকাশ অ্যাকাউন্টে প্রিয় নম্বরগুলো যুক্ত করে নিতে পারবেন। প্রয়োজনে পরবর্তী মাসে প্রিয় নম্বর পরিবর্তনও করার সুযোগ আছে।

সূত্রানুসারে, চালু হওয়ার পর গত দুদিনেই বিশাল সংখ্যক গ্রাহক তাদের বিকাশ প্রিয় নম্বর সংযুক্ত করে নিয়েছেন এবং *২৪৭# ও বিকাশ অ্যাপ থেকে কোন খরচ ছাড়াই সেন্ড মানি সেবা নিচ্ছেন। যে অল্প সংখ্যক গ্রাহক ২৫ হাজার টাকার বেশি টাকা পাঠান তারা ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত আগের চার্জেই টাকা পাঠাতে পারছেন।

গ্রাহক স্বার্থ বিবেচনায় রেখে নেয়া এই উদ্যোগের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক রয়েছে। বাংলাদেশের মোবাইল আর্থিক সেবা খাতে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সব সময় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে বিকাশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা মেনে গ্রাহকের নিরাপত্তা নিশ্চিতে নানান রকম পদক্ষেপ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, প্রযুক্তিগত জ্ঞানের সীমাবদ্ধতার কারণেই বা নিজের অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করার অনীহার কারণে এজেন্টের উপর নির্ভরশীল হয়ে টাকা পাঠানোর চেষ্টা করেন অনেক গ্রাহক। এই এজেন্ট নির্ভরতা কমাতেও এই উদ্যোগটি সহায়তা করবে। সাধারণ গ্রাহককে তাদের ব্যক্তিগত বিকাশ নম্বর ব্যবহারে উৎসাহিত করতে এবং এর বিপরীতে ওভার দ্যা কাউন্টার (ওটিসি) লেনদেনে নিরুৎসাহিত করতে ভূমিকা রাখবে বিকাশের নতুন এই উদ্যোগ।

মূল বিষয়টি হচ্ছে, প্রিয় পাঁচটি নম্বরে সেন্ড মানি ফ্রি সেবাটি নিলে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত গ্রাহকের টাকা পাঠানোর কোনই খরচ থাকবে না। দেশের প্রায় ৯ কোটির বেশি মানুষের হাতে মোবাইল ফোন থাকলেও ৬৯% ব্যবহার করেন ফিচার ফোন। ফিচার ফোন ব্যবহারকারীরা ইউএসএসডি চ্যানেলই ব্যবহার করে থাকেন। যারা *২৪৭# ব্যবহার করছেন বা বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করছেন উভয় শ্রেণির গ্রাহকের জন্যই নতুন এই উদ্যোগে সেন্ড মানি ফ্রি হয়ে গেল। ফলে সব শ্রেণির গ্রাহকই সেন্ড মানি করতে এজেন্ট বা অন্য কারও উপর নির্ভরশীল হওয়ার চেয়ে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে সেন্ড মানি করার সেবা ব্যবহারে বেশি উৎসাহিত হবেন।

সাধারণ মানুষের আর্থিক লেনদেন ঝামেলামুক্ত ও সহজ করার প্রত্যয় নিয়ে বিকাশ নিত্যনতুন যে পদক্ষেপ নিচ্ছে, সেন্ড মানির জন্য নেয়া এই উদ্যোগ তারই একটি অংশ।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর