Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ জুলাই, ২০১৯ ১৮:৪৩

মাদক ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি

মাদক ব্যবসায়ীকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় মাদক ব্যবসায়ী গোলাম কিবরিয়া প্রকাশ মিন্টুকে (৩২) বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ করেছে তার পরিবার। শনিবার রাত নয়টায় তার মৃত্যু হয়। পুলিশ জানিয়েছে মাদক বিক্রির সময় স্থানীয়রা তাকে গণপিটুনি দেয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়। পরে তার অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটলে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

নিহত মাদক ব্যবসায়ী গোলাম কিবরিয়া প্রকাশ মিন্টু উপজেলার চরকাঁকড়া গ্রামের ২নং ওয়ার্ডের ইমান আলী চৌকিদার বাড়ির ইসমাইল’র ছেলে। 

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে পিটুনির ওই ঘটনা ঘটে। নিহত মিন্টুর স্ত্রী দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

নিহত মিন্টুর বড় ভাই মোঃ আজাদ অভিযোগ করে জানান, শনিবার সন্ধ্যার দিকে তার ছোট মিন্টুকে একই এলাকার তানভিরসহ চার থেকে পাঁচ যুবক বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে চোখ বেঁধে ফেলে। এরপর বাড়ি থেকে কিছু দূরে নিয়ে পেটাতে থাকে। একপর্যায়ে ওই যুবকেরা তার ভাইকে মুমূর্ষ অবস্থায় রাস্তার পাশে ফেলে যায়। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তার অবস্থা দ্রুত অবনতি ঘটলে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আসাদুজ্জামান মাদক ব্যবসায়ী মিন্টুকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিহত মিন্টু একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। সন্ধ্যা ছয়টার দিকে পার্শ্ববর্তী ২ নম্বর ওয়ার্ডে মাদক বিক্রি করতে গেলে ওই এলাকার লোকজন মিন্টুকে পিটুনি দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ সড়কের পাশ থেকে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর তার অবস্থা অবনতি ঘটলে মিন্টুকে রাত নয়টার দিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
তিনি  আরো জানান, নিহত মিন্টুর বিরুদ্ধে থানায় মাদকের ৬টি মামলা রয়েছে। তাকে ইতিপূর্বে পুলিশ একাধিকবার গ্রেফতারও করে। হত্যার ঘটনায় তার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় এখনো কোন লিখিত অভিযোগ দেয়নি। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য