Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ ১৮:৩৯

ফরিদপুরে দুই সন্তানের জননীকে কুপিয়ে হত্যা

ফরিদপুর প্রতিনিধি :

ফরিদপুরে দুই সন্তানের জননীকে কুপিয়ে হত্যা
প্রতীকী ছবি

ফরিদপুরে নিজ বাড়িতে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ফরিদপুর সদর উপজেলার সম্প্রসারিত ফরিদপুর পৌরসভার পশ্চিম গঙ্গাবর্দী গ্রামের বেড়িবাঁধ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে পুলিশ নিহত ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে। নিহত গৃহবধূর নাম ঝর্ণা মণ্ডল (৪২)। তিনি ওই গ্রামের দুলাল মণ্ডলের (৪৮) স্ত্রী। ঝর্ণা মণ্ডল এক ছেলে ও এক মেয়ের মা।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, দুলাল মণ্ডল রাজমিস্ত্রির কাজ করতো। তার ছেলে কৃষ্ণ মণ্ডল (১৯) পড়াশুনার পাশাপাশি বাবার সাথে রাজ মিস্ত্রির কাজ করতো। ঝর্ণার মেয়ে বণ্যা (১৭) পূজার আগে মামাবাড়িতে বেড়াতে যায়। মায়ের মৃত্যুর খবর শুনে বাড়িতে ফিরে আসে বণ্যা।

মঙ্গলবার সকালের খাবার খেয়ে দুলাল ও তার ছেলে কৃষ্ণ কাজ করতে যান। ওই সময় বাড়িতে ঝর্ণা একাই ছিলেন। এলাকাবাসী দুপুর আড়াইটার দিকে এ হত্যাকাণ্ডের কথা জানতে পারে। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) বেলাল হোসেন জানান, স্বামী ও ছেলে যাওয়ার পর দিনের কোন এক সময়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই গৃহবধূর মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কুপিয়ে হত্যা করা হয়। 

ওই এলাকার বাসিন্দা কাদের মোল্লা জানান, দুলাল ও তার  পরিবারের সদস্যরা খুবই নিরীহ। ২০ বছর আগে নদী ভাঙনের শিকার হয়ে এই পরিবারের সদস্যরা পশ্চিম গঙ্গাবর্দী এলাকার ওই জায়গায় জমি কিনে বসবাস করে আসছেন। তাদের কোন শত্রু আছে বলে কখনই শোনা যায়নি।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশাসহ পুলিশের উর্ধতন ব্যক্তিবর্গ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তারা জানান, মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য