শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৭:৪৫

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানিতে রাজস্ব বাড়লেও সুবিধা বাড়েনি

দিনাজপুর প্রতিনিধি

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পাথর আমদানিতে রাজস্ব বাড়লেও সুবিধা বাড়েনি

দেশে পর্যাপ্ত চাহিদার কারণে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দিন-দিন বাড়ছে ভারত থেকে পাথর আমদানি। পাথর আমদানিতে হিলি স্থলবন্দরের পানামা ওয়ার হাউসটির মাঠে বিশাল জায়গা জুড়ে শুধু পাথর আর পাথর। আর এসব পাথর আমদানি বাড়ার সঙ্গে দেখা দিয়েছে স্থলবন্দরের জায়গা স্বল্পতা। তাই স্থলবন্দরের ভেতরের জায়গার স্বল্পতার কারণে প্রায় যানজট লেগে থাকে। 

তবে স্থলবন্দরের জায়গা বৃদ্ধি করা এবং পণ্যগুলো বন্দরের বাইরে নামানো হলে যানজট কমার সঙ্গে যেমন পাথর আমদানি বাড়বে  তেমনি পাথরের দামও কমতে পারে এমনটাই বললেন হিলি স্থলবন্দর আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন।

এদিকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রতিনিয়ত প্রায় ২শ থেকে ২শ ৫০ ট্রাক পাথর আমদানি হয়ে থাকে জানা গেছে। পাথর আমদানিকে কেন্দ্র করে তাই হিলি স্থলবন্দরে গড়ে উঠেছে পাথর বেচা-কেনার বিশাল বাজার। এতে প্রতিদিন কোটি টাকার পাথর বিক্রি হচ্ছে এই বন্দরে। আর পাথর আমদানির সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে সরকারের রাজস্ব আয়ও। এ কারণে স্থলবন্দরের কাঠামোর আরও উন্নয়ন করা হলে ব্যবসা-বাণিজ্যেরও উন্নয়ন হবে বলে মনে করছেন এখানকার ব্যবসায়ীরা।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, বিভিন্ন রাস্তা-ঘাট নির্ণানসহ বড় বড় প্রকল্পের কাজে ব্যবহৃক হচ্ছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পাথর। দেশে পাথরের চাহিদা পূরণের জন্য করতে হয় পাথর আমদানি। আমদানিকৃত পাথরগুলো হিলি স্থলবন্দরে প্রবেশের পর সেগুলো পানামা হিলি পোর্ট লিংক লিমিটেড খুব দ্রুত খালাস করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করছে এমন দাবি তাদের। হিলি কাষ্টমস সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের গত ৭ মাসে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ৯ লাখ ৬৬ হাজার মেট্রিক টন পাথর আমদানি হয়েছে। এ থেকে ৭ কেটি ৫৭ লাখ টাকা সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে।

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন জানান, আমদানি বাড়ায়, রাজস্ব বেড়েছে কিন্তু জায়গার স্বল্পতাসহ সুবিধা বাড়েনি। আমাদের পক্ষ থেকে বার বার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তারা শুধু আশ্বস্ত করেছেন কিন্তু আজও সমস্যা দূর করতে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য