শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৮:২৬
আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২১:১১

তুচ্ছ ঘটনায় ভাতিজার লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল চাচির

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

তুচ্ছ ঘটনায় ভাতিজার লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল চাচির
প্রতীকী ছবি

বগুড়ার সোনাতলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভাতিজার লাঠির আঘাতে চাচি রেবেকা বেগম (৩৮) নামে এক গৃহবধূ চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। রেবেকা বেগম ওই গ্রামের হামেদ আলীর স্ত্রী।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের সোনাকানিয়া গ্রামে। 

স্থানীয় লোকজন ও থানা সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার সকাল আনুমানিক ৬টার সময় সোনাকানিয়া গ্রামের হাসেন আলীর ছেলে ও নিহত রেবেকার ভাতিজা মোখলেছার রহমান এবং তার লোকজন প্রতিবেশী বাড়ির লোকজনের সঙ্গে জায়গা জমি নিয়ে হামেদ আলীর উঠানে এসে তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় হামেদ আলীর স্ত্রী রেবেকা বেগম তার ভাতিজা মোখলেছার রহমান ও তার ছেলে-মেয়েদেরকে তার জায়গা থেকে সরে গিয়ে ঝগড়া করতে বলেন।

এ ঘটনায় মোখলেছার রহমান ও তার ছেলেরা রেবেকা বেগমের উপর উত্তেজিত হয়ে তাকে লাঠি দিয়ে মাথায় সজোরে আঘাত করে। এতে ওই গৃহবধূ জ্ঞান হারিয়ে মাটিয়ে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার রাত ১২টায় রেবেকা বেগমের মৃত্যু হয়। রেবেকা বেগমের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ৪টায় তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। 

এ বিষয়ে সোনাতলা থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মাসউদ চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এখনও মামলা দায়ের হয়নি। তবে নিহত ব্যক্তির দাফন কাফন শেষে তার আত্মীয়স্বজন সন্ধ্যার পর থানায় এসে মামলা দায়ের করবে। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর