শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ মে, ২০২১ ১৪:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

সিরাজগঞ্জে ছিনতাই হওয়া ট্রাকসহ গ্রেফতার ৭

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জে ছিনতাই হওয়া ট্রাকসহ গ্রেফতার ৭
Google News

সিরাজগঞ্জ শহর থেকে ছিনতাই হওয়ার মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ভূষি (গো-খাদ্য) বোঝাই ট্রাকসহ আন্তঃজেলা ডাকাতদলের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একই সাথে ৩৪২ বস্তা ভূষি উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২০ মে) কুষ্টিয়া জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ডাকাতদের গ্রেফতার এবং ভূষি উদ্ধার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত ডাকাত সদস্যরা হলেণ- পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার চর রূপপুর গ্রামের খেরযমালের ছেলে মো. নাছিম আল মাল ওরফে রাজু (২১), পাবনা জেলা সদরের তিনগাছা রাজাপুর গ্রামের নজরুল মোল্লার ছেলে রফিক মোল্লা ওরফে রকিব (১৯), কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার তারা সোনিয়া গ্রামের মৃত রহমত মোল্লার ছেলে ইমরান আলী (৫০), একই উপজেলার জয়রামপুর গ্রামের রাব্বানের ছেলে রাজু আহম্মেদ (২৮), একই গ্রামের মৃত সেকেন প্রামানিকের ছেলে শাহাবুল ইসলাম (৩০), গাছের দিয়ার (টলটলিপাড়া) নাসির উদ্দিনের ছেলে রোকনুজ্জামান (২৩) ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ধানগড়া জগাইর মোড় গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে নয়ন শেখ (২৮)। 

শুক্রবার (২১ মে) দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর থানা চত্বরে এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) স্নিগ্ধ আক্তার জানান, গত বুধবার (১৯ মে) ভোররাতে সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার কাজিপুর মোড় এলাকা থেকে চালক-হেলপারকে অস্ত্রের মুখে ভয় দেখিয়ে ভূষি বোঝাই একটি ট্রাক ছিনতাই করে নিয়ে যায় চার ডাকাত। ওইদিন ভোরে চালক ও হেলপার বিষয়টি থানায় এসে জানায় এবং ভূষির মালিক আব্দুল মালেক খন্দকার থানায় মামলা করেন। মামলার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার ও বিভিন্ন এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্ত শুরু করা হয়। এরপর বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে জানতে পেরে বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারাসহ বিভিন্ন  এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই ৭ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে তাদের দেয়া তথ্যের আসামী শাহাবুল ইসলামের বাড়ি থেকে ৮৭ ও রোকনুজ্জামানে বাড়ি থেকে ২৩৫ মোট ৩৪২ বস্তা ভূষি উদ্ধার করা হয়। 

তিনি আরও বলেন, মাত্র ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে আমরা দুর্ধর্ষ ডাকাতদলকে গ্রেফতার করতে  পেরেছি। গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃজেলা ডাকাতদলের সদস্য। তারা মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই ও ডাকাতি করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে আগে কতগুলো মামলা রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


বিডি-প্রতিদিন/তাফসির আব্দুল্লাহ

এই বিভাগের আরও খবর