শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ জুন, ২০২১ ১৫:১৯
প্রিন্ট করুন printer

রংপুরে কলেজ ছাত্রী মিমের লাশ ১৫ দিন পর কবর থেকে উত্তোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর


রংপুরে কলেজ ছাত্রী মিমের লাশ 
১৫ দিন পর কবর থেকে উত্তোলন
Google News

রংপুরে কলেজ ছাত্রী ইশরাত জাহান মিমের লাশ ১৫ দিন পর আদালতের নির্দেশে কবর খুঁড়ে তোলা হয়েছে। আজ বুধবার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মালিহা খানমের উপস্থিতিতে পুলিশ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছে। মেট্রোপলিটন পশুরাম থানার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (তদন্ত) আবু মুসা সরকার লাশ উত্তোলনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মিম রংপুর পলিটেকনিকেল কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন। 

পুলিশ ও নিহত কলেজ ছাত্রীর স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ জুন কলেজ ছাত্রী ইশরাত জাহান মিমকে প্রতিবেশী বান্ধবী আইভি ডেকে নিয়ে যায়। এরপর তার কোনো সন্ধান মেলেনি। পরের দিন (৮ জুন) বাড়ির অদূরে পরিত্যক্ত একটি পুকুর থেকে মিমের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্ত না করেই দাফন করা হয়। স্বজনদের অভিযোগ মিমকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় পশুরাম থানা পুলিশ কোন মামলা নেয়নি বলে নিহত মিমের মা নার্গিস বেগম অভিযোগ করেন। পরে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন নিহত মিমের মা নার্গিস বেগম। আদালত লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত করার আদেশ দেন। আদালতের আদেশে নগরীর মুন্সিপাড়া কবরস্থান থেকে নিহত কলেজছাত্রীর লাশ উত্তোলন করা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহত মিমের বান্ধবী আইভি, তার ভাই মুন্না এবং তার বন্ধু আল আমিন টাইগারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা এস আই আলতাফ হোসেন বলেছেন, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাবার পরেই হত্যার কারণ নিশ্চিত হওয়া হবে। তবে স্বজনরা দাবি করেছেন মিমকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর